মেইন ম্যেনু

বিদেশিদের ওপর ফের হামলার আশঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের

দেশে পশ্চিমা নাগরিকদের ওপর আবার সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে ‘নির্ভরযোগ্য তথ্য আছে’—এমন দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এই তথ্যের ভিত্তিতে দেশটি বাংলাদেশে ভ্রমণ কিংবা চলাফেরা করার সময় মার্কিন নাগরিকদের সতর্ক থাকতে বলেছে। শনিবার ঢাকায় মার্কিন দূতাবাসের নিরাপত্তা বার্তায় সে দেশের নাগরিকদের এ পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। দূতাবাসের ওয়েবসাইটে বার্তাটি ওই দিন সন্ধ্যায় হালনাগাদ করা হয়েছে।

বার্তায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক হোটেলগুলোতে আয়োজিত পশ্চিমা নাগরিকদের বড় জমায়েতসহ অন্যান্য স্থানে তাঁদের লক্ষ্য করে হামলা হতে পারে। এ বিষয়ে নির্ভরযোগ্য তথ্য তাদের কাছে আছে।

এতে আরও বলা হয়, গত ২৮ সেপ্টেম্বর ইতালির একজন এবং ৪ অক্টোবর জাপানের একজন নাগরিককে হত্যার দায়িত্ব স্বীকার করেছে আইএসআইএল। ভবিষ্যতেও মার্কিন নাগরিকসহ পশ্চিমাদের লক্ষ্য করে হামলা হতে পারে। বাংলাদেশে বিদেশিদের নিরাপত্তা জোরদার করতে নিরাপত্তা সংস্থাগুলো বাড়তি পদক্ষেপ নিয়েছে। তবে সন্ত্রাসের হুমকি ‘বাস্তব ও বিশ্বাসযোগ্য’ রয়েই গেছে।

ওই বার্তায় বাংলাদেশে ভ্রমণরত কিংবা অবস্থানরত মার্কিন নাগরিকদের সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া, নিজেদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সতর্ক থাকা এবং স্থানীয় নিরাপত্তা পরিস্থিতির পরিবর্তনের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বিশেষভাবে উৎসাহিত করছে। বাংলাদেশ জুড়ে ভ্রমণের সময় দূতাবাসের কর্মীরা সতর্কতামূলক নিরাপত্তার নিয়ম অনুসরণ করতে থাকবেন। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কর্মকর্তা ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের জনসমাগমের স্থলে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। এ ছাড়া তাঁদের পায়ে হেঁটে, মোটরসাইকেলে, সাইকেলে কিংবা কোনো ধরনের খোলামেলা বাহনে চলাফেরা করতে নিষেধ করা হয়েছে। দূতাবাসের নিরাপত্তা শাখার অনুমতি ছাড়া তাঁদের আন্তর্জাতিক হোটেলসহ বাংলাদেশের বৃহৎ কোনো সমাবেশে যেতেও নিষেধ করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই