মেইন ম্যেনু

বিদেশে বসে দেশের ভাবমূর্তি নষ্টের চেষ্টা চলছে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার দিকে ইঙ্গিত করে বলেছেন, দেশের উন্নতি অনেকের ভালো লাগে না। বিদেশে বসে অনেকেই দেশের ভাবমূর্তি নষ্টের চেষ্টা চালাচ্ছেন। কী কী অপকর্ম হচ্ছে সেই খবর আমাদের কাছে আছে।

আজ মঙ্গলবার বিকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রিজের (এফবিসিসিআই) দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

জাতিসংঘের পরিবেশ বিষয়ক সর্বোচ্চ পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়ন্স অব দ্য আর্থ’ ও ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) আইসিটি টেকসই উন্নয়ন পুরস্কার সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট অ্যাওয়ার্ড পাওয়ায় এ সংবর্ধনার আয়োজন করে এফবিসিসিআই।

শেখ হাসিনা বলেন, অনেক কিছুর চেষ্টা অতীতে হয়েছে। ঘরের মধ্যে তিনি (খালেদা) নিজেকে বন্দি করে রেখেছেন। দেশের মানুষকে জ্বালিয়ে-পুড়িয়ে হত্যা করেছেন। দুই হাজারের উপরে বাস পুড়িযেছেন। তিনি (খালেদা) সাধারণ মানুষের যে ক্ষতি করেছেন এর জন্য কোনো হাহাকার ছিল না। আমরা সৃষ্টি করি, আর বিএনপি জামায়াত ধ্বংস করে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের যে যাত্রা শুরু করেছিলাম সেটা আজ আর স্বপ্ন নয়, বাস্তবে পরিণত হয়েছে। প্রত্যন্ত গ্রামে যেখানে এক সময় বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়াই ছিল স্বপ্ন, সেখানকার মানুষেরা আজ ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেশে-বিদেশে স্বজনদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে কথা বলছেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ হলে আমাদের ইন্টারনেটের গতি আরও বেড়ে যাবে। তখন আমরা টেকসেই ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পথে আরও একধাপ এগিয়ে যেতে পারবো।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের একটি টার্গেট আছে, সরকারে আসার আগে থেকেই আমরা কাজ শুরু করেছি। আমরা বিরোধী দলে থাকাকারে কৃষি, পরিবেশ, অর্থনীতি নানা বিষয়ে কাজ করেছি। যে কারণে সরকারে আসার পরপরই কী করণীয় সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে পেরেছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা কাজ করছি পরিবেশের ওপর। আমরা পরিবেশ দূষণে দায়ী নই, কিন্তু এর বিরূপ প্রভাবের শিকার।

তিনি বলেন, আমরা নিজেদের সীমিত সম্পদ দিয়েই কাজ শুরু করি। এজন্য আন্তর্জাতিকভাবে আমরা সুনাম কুড়িয়েছি। আমরা কারো দিকে তাকিয়ে থাকি না, আমরা আমাদের নিজেদের সামর্থ্য দিয়েই কাজ করে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, আপনার শিল্প-কারখানা করার সময় লক্ষ্য রাখবেন কৃষি জমি ও বনায়নে যেন এর কোনো প্রভাব না পড়ে। কারণ এর যে ক্ষতি তাতে আপনাদেরও ভুগতে হবে।

সংবর্ধনার আয়োজন করায় প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।






মন্তব্য চালু নেই