মেইন ম্যেনু

বিদ্যুৎকেন্দ্রে আগুন, সাংবাদিকের ক্যামেরা ছিনতাই

আশুগঞ্জে নির্মাণাধীন ৪৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রশাসনিক ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে বিদ্যুৎকেন্দ্র কর্তৃপক্ষ। তবে সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে স্থানীয় এক সাংবাদিকের ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়েছে কর্তৃপক্ষের লোকজন।

শনিবার দুপুরে আশুগঞ্জ বিদ্যুৎকেন্দ্রের নিজস্ব উদ্যোগে ৪৫০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল নর্থ প্রকল্পের নির্মাণাধীন প্রশাসনিক ভবনের নিচ তলায় ককসিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

আগুন লাগার সঙ্গে সঙ্গে অন্তত ৫০ থেকে ৬০ ফুট ওপরে উঠে যায়। খবর পেয়ে স্থানীয় দমকল বাহিনী ও বিদ্যুৎকেন্দ্রের নিজস্ব দমকল বাহিনী আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন লাগার খবরে বিদ্যুৎকেন্দ্রের আশপাশের লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। এ সময় স্থানীয় সাংবাদিকরা সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে মাইটিভির ক্যামেরাম্যান জাবেদের কাছ থেকে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয় কর্তৃপক্ষের লোকজন। সাংবাদিকদের সঙ্গে তারা অশোভন আচরণও করে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ক্যামেরাটি ফেরত দেয়া হয়নি। এ নিয়ে সাংবাদিকদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে হাসান জাবেদ জানান, দুপুরে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে তিনি ও তার কয়েকজন সহকর্মী আগুনের ফুটেজ সংগ্রহ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ বিদেশি একজন কর্মকর্তা কিছু বুঝে উঠার আগে তার ক্যামেরাটি ছিনিয়ে নেন।

আশুগঞ্জ বিদ্যুৎকেন্দ্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী এ এস এম সাজ্জাদুর রহমান জানান, নির্মাণাধীন বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রশাসনিক ভবনের নিচতলায় ককসিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। তবে মুহূর্তের মধ্যেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসায় বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

ক্যামেরা ছিনতাইয়ের বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে জানানো হলে তিনি জানান, কেন তারা সাংবাদিকের ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়েছে সেটা কর্তৃপক্ষের কাছে তিনি জানতে চাইবেন।






মন্তব্য চালু নেই