মেইন ম্যেনু

পদ্মায় পানি বাড়ছে, বিপদসীমা ছুঁইছুঁই

সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী থেকে : রাজশাহীর পদ্মা নদীর পানি বেড়েই চলেছে। প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। আজ পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ি পদ্মা নদীর পানি বিপদসীমার মাত্র শূন্য দশমিক ৩০ মিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

পানি বৃদ্ধি থাকায় শহর রক্ষা বাঁধের অনেক জায়গায় টাঙানো হয়েছে লাল পতাকা। বৃহস্পতিবার পদ্মায় পানি প্রবাহিত হচ্ছিলো ১৮ দশমিক ২০ মিটার উপর দিয়ে। রাজশাহীতে পদ্মার বিপদসীমা হচ্ছে ১৮ দশমিক ৫০ মিটার।

কয়েক বছরের মধ্যে এবারই বেশী পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এরমধ্যে ভাঙনে পবা উপজেলার হরিয়ানে দু’টি গ্রাম চর খানপুর ও চর খিদিরপুরের প্রায় সম্পূর্ণ অংশ নদী গর্ভে বিলিন হয়েছে। মধ্যচরেও পানি উঠায় সেখানকার জনগণ মহা বিপদে পড়েছে। গৃহ পালিত পশু নিয়েও পড়েছে বিপাকে।

হরিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মফিদুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, বিগত কয়েক বছর ধরেই ৮নং ও ৯ নং ওয়ার্ডের প্রায় সম্পূর্ণ অংশই নদী গর্ভে বিলিন হয়েছে।

রাজশাহীর পদ্মার গেজ পাঠক শহিদুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার সকালে পদ্মার পানি প্রবাহিত হচ্ছিলো ১৮ দশমিক ২০ মিটার উপর দিয়ে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।

এদিকে পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে নগরীসহ পবা উপজেলার নবগঙ্গা এলাকাসহ কয়েকটি এলাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। আশেপাশের বেশ কিছু এলাকাও প্লাবিত হতে শুরু করেছে।

গেজ পাঠক শহিদুল ইসলাম আরো জানান, পদ্মার পানি দুই দিনের মধ্যে প্রায় ৭০ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ড সুত্র জানিয়েছে, ভাঙনের বিষয়টি নিয়মিত মনিটরিং করা হচ্ছে। যেখানে ভাঙনের আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে সেখানেই মেরামত করা হচ্ছে।

এদিকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বন্য পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া আছে। নদীর পাড় রক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা চলছে বলে জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই