মেইন ম্যেনু

বিপিএলে ঝড় তুলতে আসছেন ‘সেঞ্চুরির জাদুকর’

বোলারদের জন্য তিনি যমদূত। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বিপক্ষ দলে তাকে দেখলে যে কোনো বোলারেরই পিলে চমকে ওঠে। কঠিন সব ডেলিভারিকে আকাশে ভাসিয়ে গ্যালারিতে পাঠিয়ে দেয়া তার জন্য নিত্য-নৈমত্যিক ব্যাপার। সেই ক্রিস গেইলের জন্য সবার অপেক্ষার অবসান হচ্ছে। বিপিএল মাতাতে এবার আসছেন গেইলও।

বিপিএলের প্রথম আসরে বরিশাল বার্নার্সের হয়ে খেলেছিলেন। এবারো বরিশালে খেলবেন। তবে নামটা বদলে হয়েছে বরিশাল বুলস। এই দলটির হয়ে খেলতে শুক্রবারই ঢাকায় আসবেন ২২ গজে ব্যাট হাতে ঝড় বইয়ে দেয়া এই ব্যাটসম্যান। দলটির কর্মকর্তারা এমনই জানিয়েছেন।

শুক্রবার ঢাকায় এসে গেইল সেমিফাইনালের আগে বরিশালের হয়ে সব ম্যাচেই খেলবেন। আর বরিশাল সেমিফাইনালে উঠলে পরের ম্যাচগুলোতেও দেখা যাবে তাকে। এ বিষয়ে বরিশাল বুলসের অংশীদার ও বিসিবি পরিচালক আবদুল আওয়াল চৌধুরী ভুলু বলেছেন, ‘ঢাকায় সেমিফাইনালের আগ পর্যন্ত সব ম্যাচে সে খেলবে। আর আমরা যদি পরের রাউন্ডে যাই তাহলেও সে বুলসের হয়ে খেলবে।’

বিপিএলের সাথে গেইলের অনেক স্মৃতি। প্রথম বিপিএলের প্রথম ম্যাচেই সেঞ্চুরি করেছিলেন গেইল। ওই আসরেই আরো একটি সেঞ্চুরি করেন বাঁহাতি এই দানবীয় ব্যাটসম্যান। বিপিএলের পরের আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স উড়িয়ে আনে তাকে। এখানেও একটি সেঞ্চুরি করেন গেইল।

সব মিলিয়ে বিপিএলের মোট আট সেঞ্চুরির মধ্যে গেইলই করেছেন তিনটি। বিপিএলে ছয় ম্যাচে ১০০.৫০ গড়ে ৪০২ রানের মালিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই ক্রিকেটার। ছক্কার দিকে থেকেও সবার আগে গেইল। বিপিএলে সর্বোচ্চ ৩৮টি ছক্কার মালিক তিনি। আর টি টোয়েন্টির ইতিহাসেই সবচেয়ে বেশি ১৬টি সেঞ্চুরির মালিক

সব মিলিয়ে আরো একবার টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সেঞ্চুরির জাদুকর গেইলের তাণ্ডব দেখতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন ক্রিকেটামোদীরা। অবশ্য খুব বেশি অপেক্ষা করতে হচ্ছে না। সবকিছু ঠিক থাকলে ৬ ডিসেম্বরই মিরপুরের মাঠ মাতাতে দেখা যাবে উইন্ডিজ এই ব্যাটসম্যানকে।






মন্তব্য চালু নেই