মেইন ম্যেনু

বিমানবন্দরের নিরাপত্তায় দায়িত্ব পাচ্ছে ব্রিটিশ কোম্পানি

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার এবং অন্যান্য সেবা ঢেলে সাজাতে এবার ব্রিটিশ কোম্পানিকে দায়িত্ব দিতে যাচ্ছে সরকার। আগামী ২০ মার্চ ব্রিটিশ সার্ভিস কন্ট্রাক্টর নামের এই কোম্পানিকে দায়িত্ব দেয়া হবে। তাদের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করবে বাংলাদেশে নিরাপত্তা সংস্থাগুলো।

আজ সোমবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। সচিবালয়ে ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্লেকের সঙ্গে বৈঠক শেষে মন্ত্রী সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী জানান, বিমানবন্দরের নিরাপত্তার অজুহাতে যুক্তরাজ্য কার্গো বিমান চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় সরকার উদ্বিগ্ন। ব্যবসায়ীরাও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। সরকার এ ব্যাপারে আন্তরিক। বিমানবন্দরের নিরাপত্তা কিভাবে আরও জোরদার করা যায় এ ব্যাপারে আজ ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। এখন ব্রিটিশ কোম্পানিকে দায়িত্ব দেয়া হচ্ছে। আশা করি এ ব্যাপারে যুক্তরাজ্যের আর কোনো উদ্বেগ থাকবে না।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, দ্বিপাক্ষিক এই বৈঠকে ব্রিটিশ বিনিয়োগ বাড়ানোর ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে। যুক্তরাজ্যের জন্য সরকার আলাদা অর্থনৈতিক অঞ্চল বরাদ্দ দেবে বলেও জানানো হয়েছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী জানান, যুক্তরাজ্যের ভিসা প্রসেসিংয়ের ব্যাপারে আজকের বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। এতদিন এই ভিসা প্রসেসিং হতো ঢাকা থেকে। গত ১৮ মাস আগে তা দিল্লিতে স্থানান্তরিত হয়েছে। যাতে আবারও এই ভিসা প্রসেসিং ঢাকায় নিয়ে আসা হয় এ ব্যাপারে হাইকমিশনারকে অনুরোধ করা হয়েছে।

ব্রিটিশ হাইকমিশনার সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশের বিমানবন্দরের নিরাপত্তা আন্তর্জাতিকমানের নয়। এ ব্যাপারে মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমরা এ ব্যাপারে সবধরনের সহায়তা দিতে আশ্বাস দিয়েছি।






মন্তব্য চালু নেই