মেইন ম্যেনু

বিমানের নিরাপত্তা শাখায় লাগেজ কাটা চক্র

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটের লাগেজ আনলোড করার সময় চুরি হওয়া তিনটি স্মার্টফোন সেগুলোর মালিককে বুঝিয়ে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বিমানবন্দরের ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফ মো. ফরহাদ হোসেন  বলেন, বাংলাদেশ বিমানের যাত্রী জহিরকে তার ব্যাগ থেকে চুরি হওয়া তিনটি স্মার্টফোন সব ধরনের প্রমাণ সাপেক্ষে রোববার দুপুরে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

“গত ১৫ মার্চ দোহা থেকে আসা বাংলাদেশ বিমানের বিজি-০২৬ ফ্লাইটের লাগেজ আনলোড করার দায়িত্বে ছিলেন বিমানের ট্রাফিক হেল্পার কাউসার। তিনি সহযোগীদের নিয়ে চাঁদপুরের বাসিন্দা জহিরের ব্যাগ কেটে স্মার্টফোনগুলো চুরি করেছিলেন।”

তিনি জানান, পরে বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের হাতে কাউসার আটক হলে তাকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফরহাদ বলেন, “কাউসার প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন যে, বাংলাদেশ বিমানের সিকিউরিটি সেকশনের আরও কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়মিত লাগেজ কেটে যাত্রীদের মালামাল চুরি করে।”

তার দেওয়া তথ্য খতিয়ে দেখে অন্যদের ক্ষেত্রে ব্যবস্থা নিতে ওই ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের করা মামলার আদেশের কপি বাংলাদেশ বিমানের এমডি বরাবর পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই