মেইন ম্যেনু

বিমানের ফিরতি হজ ফ্লাইটের শুরুতেই ভজঘট

হজ করতে সৌদি আরব যাওয়ার মত ফেরার পথেও যাত্রীরা ফ্লাইট বিলম্বে ভোগান্তিতে পড়তে যাচ্ছেন। আজ রাত পৌনে নয়টায় প্রথম ফিরতি ফ্লাইট শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা থাকলেও রাত দেড়টার আগে তা আসছে না বলে নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ বিমান।

বিমানের হজ অপারেশনসের জনসংযোগ কর্মকর্তা খান মোশাররফ হোসেনের পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রাত আটটা ৪০ মিনিটের নির্ধারিত ফ্লাইটটি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে রাত দেড়টা নাগাদ। তবে বিভিন্ন টেলিভিশনের সংবাদে জানানো হচ্ছে রাত তিনটার সময় প্রথম ফ্লাইট অবতরণ করবে।

প্রতি বছরই হাজিরা সৌদি আরব যাওয়া এবং ফেরার পথে একই ধরনের ভোগান্তিতে পড়েন। প্রতিবারই ধর্ম এবং বেসামরিক বিমান মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দুর্ভোগ লাঘবের আশ্বাস দেয়া হলেও তার বাস্তবায়ন হয় না বললেই চলে।

বিমানের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ফিরতি ফ্লাইটের হজ যাত্রীরা সৌদি আরবের জেদ্দা বিমানবন্দরে পৌঁছাতে দেরি করায় বিমানের প্রথম ফিরতি ফ্লাইটে বিলম্ব হবে।

প্রথম ফ্লাইটে মোট ৪১৯ জন হাজী বাংলাদেশে আসবে বলে জানানো হয়েছে বিমানের এই বিজ্ঞপ্তিতে। এই ফিরতি ফ্লাইট চলবে এক মাস ধরে। বাংলাদেশ বিমান আগামী ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত ১৩৭ ফ্লাইটে সব মিলিয়ে ৪৯ হাজার ৫৪৫ জন হজ যাত্রী পরিবহন করবে বলেও জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

জেদ্দা-ঢাকার পাশাপাশি জেদ্দা-চট্টগ্রাম এবং জেদ্দা সিলেট রুটে এই হজগুলো চলবে।

বাংলাদেশ বিমানের পাশাপাশি এমিরেটস, সৌদি এয়ারলাইনস, কাতার এয়ারওয়েজসহ বিভিন্ন সংস্থার ফ্লাইটে করেও যাত্রীরা আসবেন দেশে। এরই মধ্যে দেশে এসেছেন হাজীদের প্রথম দল। তারা যাত্রাপথের কোনো ভোগান্তিতে পড়েননি বলে জানিয়েছেন সংবাদ কর্মীদের।

এবার বাংলাদেশ থেকে মোট এক লাখ এক হাজার ৭৫৮ জন বাংলাদেশি হজ পালন করতে সৌদি আরব যান। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার এবং বাকিরা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যান। গত ১১ তারিখ হজ পালিত হয়।

গত ৪ আগস্ট ৪০১ জন যাত্রী নিয়ে প্রথম হজ ফ্লাইট সৌদি আরবের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে বিমানের প্রথম হজ ফ্লাইট।






মন্তব্য চালু নেই