মেইন ম্যেনু

বিমান যাত্রী বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ হারালেন ফায়ার সার্ভিস কর্মী

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের শিকার আমিরাত এয়ারলাইন্সের বিমানের যাত্রীদের উদ্ধার করতে গিয়ে দেশটির ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মী নিহত হয়েছেন। বুধবার সন্ধ্যায় দেশটির সাধারণ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (জিসিএএ) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, বুধবার স্থানীয় সময় দুপুর পৌনে ১টার দিকে ১৮ ক্রুসহ ৩০০ আরোহী নিয়ে আমিরাত এয়ারলাইন্সের ইকে-৫২১ ফ্লাইটটি দুবাই বিমানবন্দরে অবতরণের পর হঠাৎ বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। ভারতের থিরুভানানথাপুরাম বিমানবন্দর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে উড্ডয়ন করেছিল বিমানটি।

এ ঘটনায় বিমানের সব আরোহীকে উদ্ধারে তাৎক্ষণিকভাবে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তৎপরতা শুরু করেন। বিমান থেকে যাত্রীদের নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হলেও উদ্ধার তৎপরতা চালাতে গিয়ে ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মীর প্রাণহানি ঘটেছে। দেশটির সাধারণ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ বলছে, আমরা দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, বিমান যাত্রীদের প্রাণ রক্ষা করতে গিয়ে ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মী মারা গেছেন। নিহতের পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছে জিসিএএ।

দুবাইয়ের দেইরা এলাকার বাসিন্দা রেজি জর্জ বলেন, তার ভাই ও পরিবারের অন্য সদস্যরা ওই বিমানের যাত্রী ছিলেন। তারা স্থানীয় সময় ১২ টা ৫০ মিনিটে তাকে ফোন করে জানান, বিমানে আগুন ধরেছে; যাত্রীরা সবাই বিমান থেকে বের হয়েছেন। তার দুই সন্তানসহ পরিবারের অন্য সদস্যরাও নিরাপদে বেরিয়ে এসেছেন।

বিমানটিতে ১৮ ক্রুসহ ৩০০ আরোহীর মধ্যে বেশিরভাগ যাত্রীই ভারতীয়। টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে, বিমানটিতে ভারতের ২২৬ আরোহী ছিলেন।

তবে বিমান দুর্ঘটনার পর ২২ দেশে আমিরাত এয়ারলাইন্সের বিমানের চলাচল বাতিল করা হলেও স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় দুবাই বিমানবন্দর থেকে বাহরাইন ও কাতারের উদ্দেশ্যে দুটি ফ্লাইট যাত্রা শুরু করেছে। বিমান দুর্ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি কাজ শুরু করেছে বলে আমিরাত সরকার জানিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই