মেইন ম্যেনু

বিরল ব্লাডমুন দেখলো বিশ্ববাসী (ভিডিও)

৩০ বছরেরও বেশি সময় পর পৃথিবীর বাসিন্দাদের সামনে উন্মোচিত হলো এক বিরল ঘটনা। বিশ্ববাসী চাঁদের নতুন চেহারা দেখলো। একই সঙ্গে পূর্ণিমা, ‍চন্দ্রগ্রহণ এবং ব্লাডমুনের রক্তিম আলোয় ভাসলো পৃথিবী।

যদিও ব্লাডমুনের রক্তিমতার ছাপ বাংলাদেশের কোথাও দেখা যায়নি। কিন্তু প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ইন্টারনেটের সহায়তায় অনেকেই দেখছেন রক্তিম চাঁদ। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা সবাইকে ব্লাডমুন চাক্ষুষ দেখানোর জন্য লাইভ ফিড সরবরাহ করে।

নাসার টিভিতে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৮ টা থেকে ১১.৩০ মিনিট পর্যন্ত সরাসরি ব্লাডমুনের ভিডিও দেখানো হয়। এজন্য নাসার সৌর-পদার্থবিজ্ঞানী ক্যালিফ-মিটজি-এডাম টুইটারে সরাসরি অংশ নিয়ে এই ঘটনার বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা প্রদান করেন। উৎসুক প্রশ্নকর্তাদের উত্তরও মেলে টুইটারে।

উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, আটলান্টিক মহাসাগর, গ্রিনল্যান্ড, ইউরোপ, আফ্রিকা, ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে এই উত্তেজনাকর মুহূর্ত অবলোকন করেছেন অনেকেই।

ব্লাডমুনের সৌন্দর্য্যের স্থায়ীত্ব ছিল ১ ঘণ্টা ১১ মিনিট। চন্দ্রগ্রহণ শুরু হয় যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৮ টা ১১ মিনিটে। শেষ হয় ১০ টা ১১ মিনিটে। অন্যদিকে রাতভর বৃহদায়কার চাঁদের আলো পৃথিবীকে আলোকিত করেছে।

ফের ব্লাডমুনের দেখা মিলবে ২০৩৩ সালে। এর আগে এমন ঘটনা চোখে পড়েছিল ১৯৮২ সালে।

blddomoon

ভিডিও:






মন্তব্য চালু নেই