মেইন ম্যেনু

বিশিষ্টজনদের হুমকির অভিযোগে আব্দুল হক রিমান্ডে

ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) নামে দেশের বিশষ্ট ব্যক্তিদের প্রাণনাশের হুমকিদাতা আব্দুল হকের এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর কবির রাজ তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ডিবি পুলিশের ইন্সপেক্টর হাফিজুর রহমান বুধবার এ আসামিকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

পুলিশের দাবি, গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর তেজগাঁও এলাকা থেকে আব্দুল হককে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের সময় তার কাছ থেকে দুটি ল্যাপটপ ও একটি স্মার্টফোন জ্বদ করা হয়।

বুধবার রাজধানীর মিন্টো রোড ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম জানান, আবদুল হকে দেশের বিশিষ্ট নাগরিক, রাজনীতিবিদসহ ১৫৩ ব্যক্তিকে হুমকি দেন আইএস ও এবিটির নামে।

হুমকি পাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল, প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খান, শিক্ষক ও ইতিহাসবিদ অধ্যাপক মুনতাসির মামুন, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির শাহরিয়ার কবির, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, সাবেক আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ।

যুগ্ম কমিশনার জানান, “আব্দুল হক জকিগঞ্জের একটি মাদ্রাসার শিক্ষক। তিনি পূর্বশত্রুতার জের ধরে ফাইজুর রহমান, সালেহ আহম্মেদ ফোয়াদ ও মাওলানা সাদ নামের তিন ব্যক্তির নামে ফেসবুক আইডি খুলে এবং তাদের মোবাইল ফোন নম্বর ক্লোন করে এর মাধ্যমে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের হুমকি দিচ্ছিলেন। আরবি ও বাংলা ভাষার পাশাপাশি ইংরেজি ও আইটি এক্সপার্ট আব্দুল হক।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই