মেইন ম্যেনু

বিশ্বকাপেও গেইল অশোভন আচরণ করেছিলেন!

বিগ ব্যাশের ম্যাচে চ্যানেল টেন এর নারী উপস্থাপিকার সঙ্গে বাজে আচরণের জন্য ১০ হাজার অস্ট্রেলিয়ান ডলার জরিমানা গুনেছেন ক্রিস গেইল।

এ ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফাঁস হল ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান এই ব্যাটিং দানবের আরেকটি কেলেঙ্কারির খবর। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ায় বিশ্বকাপ চলাকালে গেইল এ ঘটনা ঘটিয়েছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে । সে সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সেবায় থাকা অস্ট্রেলিয়ার এক নারীর সঙ্গে ‘অশোভন’ আচরণ করেছিলেন ক্রিস গেইল। উপস্থাপিকা মেলানি ম্যাকলাফলিনের ঘটনার পর মুখ খুলেছেন সেই নারী।

বিশ্বকাপের সময় একদিন কাজের জন্য ওই নারী গেইলদের ড্রেসিং রুমে প্রবেশ করেন। তিনি ভেবেছিলেন সে সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড়রা মাঠে রয়েছে। রুমে ঢুকে তিনি তোয়ালে পড়া ক্রিস গেইলকে দেখতে পান। সে সময় গেইল তোয়ালের কিছুটা অংশ খুলে তার জননেন্দ্রিয়ের দিকে নির্দেশ করে বলেন, ‘তুমি কী এটাই খুঁজছো?’

এই ঘটনার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের টিম ম্যানেজার রিচি রিচার্ডসন সব খেলোয়াড়দের মেইল পাঠান। সেখানে তিনি ‘নারীদের’ আরো বেশি সম্মান দেখানোর নির্দেশ দেন। অবশ্য মেইলে তিনি গেইলের বিষয়টি উল্লেখ করেননি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই নারী এ বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘তার এমন আচরণের পর আমি কিংকর্তব্যবিমুঢ় হয়ে যাই। আমি খুবই আহত হই এবং ড্রেসিং রুম থেকে বেরিয়ে যাই। আপনাকে অস্ট্রেলিয়ায় এসে অবশ্যই ভদ্র আচরণ করতে হবে। আর সেটা যদি না করতে পারেন তাহলে দেশে ফিরতে পারবেন না। ড্রেসিং রুমে তোয়ালে পড়ে থাকাটা হয়তো স্বাভাবিক। কিন্তু যৌন হয়রানিমূলক কৌতুক কতোটা যৌক্তিক?’






মন্তব্য চালু নেই