মেইন ম্যেনু

‘বিশ্বজুড়ে খাবারের অভাবে বছরে অন্তত ৩১ লাখ শিশুর মৃত্যু’

যুদ্ধ-সংঘাতসহ বিভিন্ন কারণে খাদ্য সঙ্কটে পড়ে প্রতিবছর প্রাণ হারাচ্ছে প্রায় ৩১ লাখ শিশু। আর বিশ্বব্যাপী ক্ষুধার তাড়নায় ভুগছেন প্রায় ৮০ কোটি মানুষ। বিশ্বব্যাপী ক্ষুধাপীড়িত মানুষদের এমন পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে গ্লোবাল হাঙ্গার ইনডেক্স।

সোমবার জার্মান দাতব্য সংস্থা ওয়েল্টহাঙ্গারহিলফ, ইন্টারন্যাশনাল ফুড পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট (আইএফপিআরআই) এবং কনসার্ন ওয়ার্ল্ডওয়াইডের সঙ্গে যৌথভাবে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, ‘বিশ্বের ৫২টি উন্নয়নশীল দেশে গৃহযুদ্ধ ও বেসামরিক অস্থিতিশীলতার কারণে খাদ্যের অভাব মারাত্মক ও উদ্বেগজনক পর্যায়ে পৌঁছেছে। সহিংসতা এবং অস্থিতিশীলতার কারণে মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র ও চাদের পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে। এছাড়া সিরিয়া, ইরাক ও দক্ষিণ সুদানে সহিংসতার কারণে বড় রকমের খাদ্য-সংকট সৃষ্টি হয়েছে।’ যুদ্ধের সঙ্গে খাদ্যাভাবের সম্পর্ক খুবই ঘনিষ্ঠ বলে উল্লেখ করা হয়েছে এ প্রতিবেদনে।

জার্মান স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ওয়েল্টহাঙ্গারহিলফ এর এক কর্মকর্তা জানান, বিশ্বে বর্তমানে ১৭ কোটি ২০ লাখ মানুষ যুদ্ধ ও সহিংসতার মুখে রয়েছে। এ কারণে ইয়েমেন, আফগানিস্তান, জাম্বিয়া, পূর্ব তিমুর, সিয়েরালিওন, হাইতি, মাদাগাস্কার ও নাইজেরিয়ার বহু লোক খাদ্য সংকটের মুখে রয়েছে।

তবে সশস্ত্র সংঘাতের সুরাহা না করতে পারলে খাদ্য সঙ্কটের সুরাহা সম্ভব নয় বলেও হতাশা জানিয়েছেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই