মেইন ম্যেনু

বিশ্বের প্রথম ‘বস্তি জাদুঘর’

স্লামডগ মিলিয়নিয়ার খ্যাত ভারতের মুম্বাই শহরের ধারাভি বস্তি। আলোচিত এই শহরেই তৈরি হতে চলেছে বিশ্বের প্রথম ‘বস্তি জাদুঘর’ (স্লাম মিউজিয়াম)। এই জাদুঘর প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত সংগঠকরা এ তথ্য জানিয়েছেন।

২০০৮ সালে ড্যানি বয়েলের তৈরি ‘স্লামডগ মিলিয়নিয়ার’ ছবিটি থেকেই এই জাদুঘর তৈরির ধারণা পাওয়া গেছে। ‘বস্তি জাদুঘরে’ প্রদর্শিত হবে মুম্বাইয়ের ‘ধারাভি’ বস্তির জীবন-যাপন। আর এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তম এ বস্তিতেই গড়ে তোলা হবে জাদুঘরটি। ফেব্রুয়ারির দুই তারিখে জাদুঘরটি উদ্বোধন করা হবে। আর এটি দু’মাসের জন্য চালু করা হবে।

এ উদ্যোগের পেছনে রয়েছেন স্পেনের শিল্পী জর্জ রুবিও। তিনি এএফপিকে জানিয়েছেন, এটি হবে বস্তিতে নির্মিত বিশ্বের প্রথম জাদুঘর।’ এর আগে কখনও এ ধরনের জাদুঘর তৈরি করা হয়নি। বিশেষ করে বস্তিতে বসবাসকারী মানুষের জীবন-যাপন নিয়ে এ ধরনের কোনো কাজই এর আগে করা হয়নি।

ধারাভির বস্তির অলি গলিতে বাস করে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ। এর মধ্যে রয়েছে অসংখ্য ছোট ছোট কারখানা। এসব কারখানায় কল্পনাযোগ্য এমন কিছু নেই, যা তৈরি হয় না। তাই নিঃসন্দেহে এটি একটি ব্যতিক্রমী কাজ বলে বিবেচিত হবে এমনটাই আশা করছেন এর সংগঠকরা।

ড্যানি বয়েল নির্মিত স্লামডগ মিলিয়নিয়ারের আকাশচুম্বী সাফল্যের পর ধারাভি এক নিছক বস্তি থেকে হয়ে উঠেছে পর্যটনস্থল। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের পর্যটকদের এর প্রতি আকর্ষণ ক্রমাগত বাড়ছে। পর্যটকদের ঘুরিয়ে দেখাতে এখানে গাইডের সংখ্যাও ক্রমে বাড়ছে। ঘুরতে আসা পর্যটকদের ধারাভির বিভিন্ন কারখানা ঘুরিয়ে দেখান এসব গাইডরা। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের প্রিন্স চার্লস টেকসই জীবনযাপনের ক্ষেত্রে ধারাভিকে একটি আদর্শ হিসেবে উল্লেখ করেছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই