মেইন ম্যেনু

বিশ্ব ইজতেমার নিরাপত্তায় ১৪ ওয়াচ-টাওয়ার

বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে মুসল্লীদের নিরাপত্তা প্রদানে ১৪টি ওয়াচ-টাওয়ার স্থাপন করা হবে। পুরো ইজতেমা ময়দান থাকবে সিসি ক্যামেরার আওতায়।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে আয়োজিত উচ্চ পর্যায়ের এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন।

তিনি বলেন, অন্যান্য বছরের তুলনায় এবারের বিশ্ব ইজতেমায় গোয়েন্দা নজরদারি বেশি থাকবে। ওয়াচ-টাওয়ার থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করা হবে।

মন্ত্রী জানান, ইজতেমার নিরাপত্তা দিতে পূর্ণ প্রস্তুতি রয়েছে সরকারের। বিদেশী মুসল্লীদের জন্য নির্ধারিত এলাকায় ঢুকতে হলে ‘আর্চওয়ে’ (নিরাপত্তার জন্য নির্মিত বিশেষ গেট) দিয়ে যেতে হবে। নৌ, সড়ক এবং রেলপথে মুসল্লীদের জন্য বিশেষ পরিবহন ব্যবস্থা রাখা হবে।

ফায়ার সার্ভিস এবং মেডিকেল টিম থাকবে সার্বক্ষণিকভাবে। আগামি মাসের ৪ তারিখ একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল বিশ্ব ইজতেমা ময়দান পরিদর্শন করবে বলেও জানান মন্ত্রী।

বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মোজাম্মেল হক খান, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব চৌধুরী মোহাম্মদ বাবুল হাসান, পুলিশ প্রধান একেএম শহীদুল হক, র্যা বের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদসহ অন্যান্য শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রধান এবং বিশ্ব ইজতেমার দায়িত্বে থাকা নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ৮-১০ জানুয়ারি এবং ১৫-১৭ জানুয়ারি দুই পর্বে টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। হজ্বের পর মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম সম্মেলন হিসেবে বিশ্ব ইজতেমা মর্যাদা পায়। এতে দেশ-বিদেশের ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা অংশ নেন।

আগে এক পর্বে এই ইজতেমা অনুষ্ঠিত হত। অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাওয়ায় এখন সেটি দুই পর্বে অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা অদূরে টঙ্গীর তুরাগ নদীর পারে প্রতি বছর বিশ্ব ইজতেমার আয়োজন করা হয়।






মন্তব্য চালু নেই