মেইন ম্যেনু

বিশ্ব জয় করতে চলেছেন বাংলাদেশের মেয়ে প্রিয়তি

মিস আয়ারল্যান্ড তিনি। অথচ বাংলাদেশি। দেশপ্রেম ছিল ঠিকই কিন্তু আন্তর্জাতিকতাবোধ ছিল বলেই মানুষে মানুষে ভেদ করেননি। মিস আয়ারল্যান্ড হিসেবে সেখানকার মানুষের কল্যানে কাজ করে গেছেন। দেশেও সেবামূলক কাজে জড়িয়ে ছিলেন তিনি। এসব কথার অবতারণা এ জন্যই যে এ সুন্দরী আর অন্যদের মতো ভোগ-বিলাসিতায় ডুবে যাননি। ব্যক্তিগত জীবনে বৈমানিক মিস আয়ারল্যান্ড প্রিয়তি এবার বিশ্বজয় করতে চলেছেন।

জ্যামাইকায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে মিস আর্থ-২০১৫ সুন্দরী প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতায় বিশ্বের অন্যান্য প্রতিযোগিদের পেছনে ফেলে সেরা পাঁচ এ জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের মেয়ে মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি। অনেকদিন ধরেই প্রিয়তির স্বপ্ন ছিল এবার বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় নাম লেখাবেন। সে জন্য কম পরিশ্রম করেন নি তিনি। শারিরিক সৌন্দর্য অটুট রাখার পাশাপাশি মর্যাদাপূর্ণ এই প্রতিযোগিতায় পার করেছেন বেশ কয়েকটি ধাপ। এই প্রতিযোগিতার জন্য বৃক্ষরোপণ থেকে শুরু করে সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য তহবিল গঠন পর্যন্ত করতে হয়েছে তাঁকে। সবগুলো ধাপই কৃতিত্বের সঙ্গে পার করেছেন প্রিয়তি।

2015_10_18_12_46_57_DTfeTZPC0FEb1KVw0brj21raVhWLh6_original

জ্যামাইকা থেকে সোমবার সকালে এক ফেসবুক বার্তায় প্রিয়তি জানালেন সুখবার টা। ‘রোববার রাতেই সেরা পাঁচে জায়গা করে নিয়েছি আমি। দফায় দফায় ইন্টারভিউ আর ন্যাশনাল কস্টিউম রাউন্ডটা খুব কষ্টের ছিল।’ আগামীকাল সন্ধ্যায় ফাইনাল রাউন্ড-এ অংশ নিবেন প্রিয়তি।

প্রিয়তির জন্ম ঢাকার ফার্মগেটে। কৈশোরে দেশ ত্যাগ করেন তিনি। পড়াশোনার পাশাপাশি অনেকটা শখের বশেই করতেন মডেলিং। আয়ারল্যান্ডে ২০১৪ সালের ‘মিস আয়ারল্যান্ড’ খেতাবই শখকে নেশায় পরিণত করে তার। ব্যক্তিগত জীবনে বিমান চালক এ সুন্দরীর দুটি সন্তান রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই