মেইন ম্যেনু

বিস্ময় বালক! ১২ বছর বয়সেই ৩ ডিগ্রি অর্জন, ১৮ বছরে ডাক্তার হওয়ার লক্ষ্য

বয়স তার সবেমাত্র ১২ বছর। বিশ্বের চোখে সে বিস্ময় বালক। কেন না, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্যাকরামেন্টোর বাসিন্দা তানিষ্ক অ্যাব্রাহাম এরমধ্যেই তিনটি কমিউনিটি কলেজ থেকে ডিগ্রি অর্জন করেছেন।

এছাড়া এই বিস্ময় বালককে ইতিমধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক কলেজ থেকে ভর্তির প্রস্তাব দিয়েছে। তবে ক্যালিফোর্নিয়ার দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিও হয়ে গেছে এই বিস্ময় বালক। এবার তার লক্ষ্য ১৮ বছর বয়সের মধ্যে ডাক্তারি পাস করা। এমনটাই জানিয়েছে তানিষ্ক।

তানিষ্কের এইমুহূর্তে পরিকল্পনা বায়ো মেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়ার। তারপর ডাক্তারি পড়া এবং সর্বশেষ মেডিক্যাল রিসার্চার হওয়া। মাত্র সাত বছর বয়সে কমিউনিটি কলেজে ভর্তি হয় তানিষ্ক। গতবছরই সে আমেরিকান রিভার কলেজ থেকে সাধারণ বিজ্ঞান, অঙ্ক, পদার্থ বিদ্যা এবং বিদেশী ভাষায় অ্যাসেসিয়েট ডিগ্রি অর্জন করে।

তবে এত অল্প বয়সে কলেজে ক্লাস করতে প্রথমে তানিষ্ককে অনুমতি দেননি অধ্যাপকরা। কিন্তু পরে তানিষ্কের আগ্রহ, একাগ্রতা ও বুদ্ধি সবকিছুর কাছে হার মানে। তখন তার মাকেও তার সঙ্গে ক্লাস করতে হয়। তবে ছোট্ট তানিষ্কই তার মা, পেশায় পশু চিকিতৎসককে অনেক সময়েই সাধারণ রিলেটিভিটি ও স্পেশাল রিলেটিভিটির মধ্যে তফাৎ বুঝিয়ে দিত।

তানিষ্কের বাবা বিজউ অ্যাব্রাহাম জানিয়েছেন, তার ছেলের ছোট থেকেই সবকিছু খুব তাড়াতাড়ি শিখে নেওয়ার ক্ষমতা ছিল। তবে অনেক সময়ই বাচ্চাদের এই অতিবুদ্ধি থাকলে লোকে তাদের পাগল ভাবে। কিন্তু তানিষ্ক অন্য আরও সাধারণ বাচ্চার মতোই খেলতে, গল্প করতে ভালবাসে। তার কাছে পড়াশোনাটাও একটা মজার খেলা।






মন্তব্য চালু নেই