মেইন ম্যেনু

বিয়েতে অবাক উপহার চাইলেন কনে

বিয়েতে কনেকে যেসব উপহার দেওয়া হয়, তা কমবেশি সবারই জানা।কিন্তু কদিন আগে ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক বিয়েতে কনে এমনই এক উপহার চেয়ে বসলেন যা ধারণারও বাইরে।আবার সবাই চমৎকৃতও হলেন। বর ও তার শ্বশুর বাড়ির কাছ থেকে ১০ হাজার গাছের চারা উপহার হিসাবে চাইলেন ওই কনে। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ভিন্দ জেলায়।

এই জেলার ২২ বছরের কনে প্রিয়াঙ্কা ভাদোরিয়ার ছোটবেলা থেকেই গাছপালা লাগানোর শখ। গত ২২ এপ্রিল তার বিয়ে হয়। বিয়ের দিন গয়না বা অন্য কোনও উপহার না চেয়ে প্রিয়াঙ্কা ১০ হাজার গাছ লাগানোর উপহার চান। আর এই গাছগুলি গ্রামের কৃষক ও সমাজকর্মীদের মাধ্যমে লাগানো হবে তার বাড়ি ও শ্বশুরবাড়ির আশেপাশে, এটাই তার দাবী।

কারণ হিসাবে জানা যায়- বিজ্ঞানের স্নাতক প্রিয়াঙ্কা দেখেছেন দিনের পর দিন গাছের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। সবুজ কমায় দেখা দিয়েছে খরার প্রকোপ। পেশায় কৃষক তার বাবা। খরার কারণে চাষের কাজ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এইজন্য তিনি চান, এই গাছগুলি লাগানো হোক। পৃথিবীকে বাসযোগ্য করে তোলার জন্য তার এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন এই নববধূ।

প্রিয়াঙ্কার এই সিদ্ধান্তে দারুন খুশি তার স্বামী রবি চৌহান। তিনি ইতিমধ্যেই গাছ লাগানোর কাজ শুরু করে দিয়েছেন। তারা ঠিক করেছেন, প্রতিবার বিবাহবার্ষিকীতে গাছ লাগাবেন।

তথ্যসূত্র : এবিপিআনন্দ



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই