মেইন ম্যেনু

বিয়ের দাবিতে গভীর রাতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে গভীর রাতে অবস্থান নিয়ে আমরণ অনশন কর্মসূচী ঘোষণা দিয়েছে প্রেমিকা।

রোববার রাত ১২টা থেকে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন পালন করছে এ প্রেমিকা। এ ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের পূর্ব কাউয়ার চর গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পূর্ব কাউয়ার চর গ্রামের শাহাজামালের মেয়ের (১১) সঙ্গে একই গ্রামের আব্দুর রশিদ মিয়ার ছেলে সহিদুর রহমানের (১৫) দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তারা একই মাদরাসায় পড়াশুনা করতো। এ সম্পর্ক বিয়েতে পরিণত করতে এক পর্যায়ে প্রেমিকা প্রেমিক সহিদুরকে বারবার চাপ সৃষ্টি করতে থাকে। কিন্তু বিয়ের প্রস্তাবে নানা অজুহাতে দেখিয়ে এড়িয়ে যেতে থাকে প্রেমিক সহিদুর।

এক পর্যায়ে সহিদুর প্রেমিকা শারমিন আক্তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দিলে বিয়ের দাবি নিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেয় শারমিন। একই সঙ্গে খাওয়া-দাওয়া ছেড়ে আমরণ অনশনের ঘোষণা দিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছে সে।

এ ঘটনায় এলাকাজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এদিকে প্রেমিকের পরিবার ওই মেয়েকে নিয়ে পড়েছে বিপাকে। অনাহারে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি সুরাহা করতে পারছে না। রোববার সন্ধ্যায় দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আমির হোসেন বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য ইউপি সদস্য হাসেমকে দায়িত্ব প্রদান করেন।

ইউপি সদস্য হাসেম মিয়া জানান, উভয় পরিবারের লোকজনের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে বিষয়টি নিষ্পত্তির চেষ্টা চলছে।

রৌমারী থানার ওসি সোহরাব হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বিষয়টি সামাজিকভাবে নিষ্পত্তির লক্ষ্যে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যানসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা দায়িত্ব নিয়েছেন। তবে বিষয়টি ওপর আমরা সার্বক্ষণিক দৃষ্টি রাখছি।






মন্তব্য চালু নেই