মেইন ম্যেনু

বিয়ের দিনেও স্বামীর পুরো নাম জানতেন না দীপা!

অবাক করার মতো বিষয়ই বটে। নাম পরিচয় না জেনেই অভিনেতা সুজনকে বিয়ে করেছিলেন অভিনেত্রী দীপা। সম্প্রতি এমন তথ্য প্রকাশ করেছেন দীপা নিজেই। মাছরাঙা টেলিভিশনের ঈদের রাঙা সকাল অনুষ্ঠানের শুটিংয়ে বিয়ে নিয়ে এমন মজার তথ্যটি জানিয়েছেন দীপা।

দীপা বলেন, ‘মাত্র নয় দিনের মাথায় বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। বিয়ের দিন অনেকেই আমাকে সুজনের পুরো নাম জিজ্ঞাসা করেছিলেন। তবে আমি বলতে পারিনি। বিয়ের পরদিন সুজনের পুরো নাম, পরিচয়, কোথায় পড়াশোনা করেছে— এ সবকিছু জেনেছি।’

দীপা এও জানান, একটি নাটকে অভিনয় করতে গিয়ে সুজনের কণ্ঠে ‘পৃথিবীতে প্রেম বলে কিছু নেই’ গানটি শোনেন। সে গান শুনেই সুজনের প্রতি দীপার ভালো লাগা তৈরি হয়। পরবর্তীতে নির্মাতা গিয়াসউদ্দিন সেলিমের মধ্যস্থতায় তাঁরা দুজন বিয়ের পিঁড়িতে বসেন।

দীপা-শাহেদ দুজনই তাদের বিয়ের ঘটক গিয়াসউদ্দিন সেলিমকে ‘উকিল বাবা’র মর্যাদা দিয়েছিলেন।
বিয়ে নিয়ে ‘রাঙা সকাল’ অনুষ্ঠানে দীপা-শাহেদ আরও অনেক মজার স্মৃতিকথা বলেছেন। তাঁরা জানান, দুজনই এই প্রথমবারের মতো কোনো টক শো’তে অংশ নিয়ে নিজেদের জীবনের গল্প বলেছেন।

২০০৬ সালের ২৭ মে বিয়ে করেন অভিনেত্রী দীপা খন্দকার ও অভিনেতা শাহেদ আলী সুজন দম্পতি। কিছুদিন আগেই বিয়ের নবম বিয়ে বার্ষিকী পালন করলেন দুজন।

রুম্মান রশীদ খান ও অদিতির উপস্থাপনায় রাঙা সকাল-এর বিশেষ পর্বটি প্রচারিত হবে ঈদের চতুর্থ দিন সকাল সাতটায়। অনুষ্ঠানটির প্রযোজক রাকিবুল আলম ও জোবায়ের ইকবাল।






মন্তব্য চালু নেই