মেইন ম্যেনু

বিয়ে করে যৌতুক হিসেবে একটি নিম গাছ পেলো বর

মেয়ের দায়গ্রস্ত পিতা তার জামাইয়ের হাতে যৌতুক হিসেবে তুলে দিলেন একটি নিম গাছের চারা।সঙ্গে বলে দিলেন তার মেয়ে ও নিম গাছটির যত্ন নিতে।

এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের রাজস্থানের কোটা এলাকায়। সেখানকার এ ঘটনা এখন অব অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে। অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া লিখেছে, কোটা জেলার অনগ্রসর গ্রাম ঢাকারখেরি। সেখানে একটি বিয়ে সবাইকে বিস্মিত করেছে।

যখন কন্যাকে উপযুক্ত পাত্রের হাতে তুলে দিতে কাড়ি কাড়ি টাকা, গহনাপত্র দিতে হয় সেখানে একজন পিতা তার কন্যা ও নিম গাছের একটি চারা তুলে দিলেন। ওই পিতা তার জামাতা ও তার পরিবারের সদস্যদের আগেই বলে দিয়েছিলেন তার কাছে তার কন্যা ও একটি নিম গাছ ছাড়া আর কিছু নেই।

তা-ই তাদের হাতে তুলে দিতে চান তিনি। তা গ্রহণ করতে তাদের অনুরোধ করেন তিনি। তারাও রাজি হয়ে যায়। আয়োজন করা হয় বিয়ে। অনুষ্ঠান শেষে ওই পিতা তার জামাইয়ের হাতে কন্যা ও নিম গাছ দিয়ে ভবিষ্যতে তাদের যত্নে নিতে অনুরোধ করেন।

বিষয়টি যেহেতু আগে থেকেই আলোচনা করে নেয়া ছিল তাই পাত্রপক্ষ তার এ উপহার খুশিমনে গ্রহণ করে। উল্লেখ্য, পাত্রী শকুন্তলা কাবরা ৯ম শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। তিনি বলেন, সরকারের বিভিন্ন রকম স্মিমের জন্য আমি গ্রামের মানুষের ফরম ফিলআপ করে দিয়েছি।

যৌতুক একটি সামাজিক ব্যাধি। আমার পিতা আমাকে যৌতুক হিসেবে একটি গাছ দিয়েছেন এতেই আমি খুশি। তার এই উপহার সমাজের কাছে একটি বার্তা দিয়ে যাচ্ছে। পাশের জেলা ভিলওয়ারার লাদপুর গ্রামের লক্ষণের সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই