মেইন ম্যেনু

বুকের বাইরে হৃৎপিণ্ড নিয়ে ১৮ বছর!

হৃৎপিণ্ডকে সুরক্ষিত রাখার জন্য বুকের শক্ত খাঁচা, ডায়াফ্রাম আরো কতো আয়োজন! অথচ সেই গুরুত্বপূর্ণ প্রত্যঙ্গটি নাকি শরীরের বাইরে নিয়ে ১৮ বছর ধরে দিব্যি বেঁচে আছেন গুজরাটের এক তরুণ।

আহমেদাবাদ সংলগ্ন একটি গ্রামের অর্পিত। জামা খুললেই দেখা যায়, বুকের মাঝ বরাবর ঝুলছে হৃত্পিণ্ড!

এই ঘটনা চিকিত্সা বিজ্ঞানের কাছেও বিস্ময়ের ব্যাপার। চিকিত্সকদের ধারণা, অন্তত ভারতে এমন ঘটনা আর দ্বিতীয়টি নেই।

চিকিৎসকদের মতে, দেহের বাইরে হৃ্তপিণ্ড নিয়ে যেসব শিশু জন্মায় তারা সঙ্গে সঙ্গেই মারা যায়। কিন্তু অর্পিতের ঘটনাটা বিস্ময়কর। তিনি একেবারেই সুস্থ। স্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন। খেলাধুলো থেকে ঘরের কাজকর্ম সবই করেন নির্ঝঞ্ঝাটে।

১৯৯৭ সালে জন্ম হয় অর্পিতের। কিন্তু শরীরের বাইরে হৃত্পিণ্ড দেখে চমকে গিয়েছিলেন চিকিত্সকরা। তারা তখন বলেছিলেন, বেশিদিন বাঁচবে না। কিন্তু তাদের ভুল প্রমাণ করে দিব্যি সুস্থ শরীর নিয়ে আজও বেঁচে আছেন অর্পিত।

অর্পিত বলেন, এতে তার কোনও সমস্যা নেই। নবম শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। এখন বাবার সঙ্গে চাষ ও পশুপালনের কাজ করেন।






মন্তব্য চালু নেই