মেইন ম্যেনু

বুড়ো বয়সেও বলিউড সেরা যেসব নায়ক

রঙ্গিন ঝলমলে দুনিয়া বলিউড। এই বলিউডে নতুন বা উঠতি নায়কদের তুলনায় এখনও সেরা পুরনো নায়করা। অর্থাৎ ৩০ থেকে ৩৫ বছরের নায়কদের তুলনায় এখনও হিট ৪০ থেকে ৫৫ বছরের নায়করা।

দেখা গেছে পুরনো মানে বয়স্ক নায়কদের সাথে যদি নতুন কোন নায়কের ছবি মুক্তি পায়, তবে হিট করছে পুরনোরাই। দর্শক থেকে শুরু করে নির্মাতা আর বুকিং এজেন্টদের কাছেও নতুনদের থেকে পুরনোদের দারুণ চাহিদা। বলা চলে, পুরনোদের জনপ্রিয়তাকেই পুঁজি করে টিকে আছে বলিউড।

সঞ্জয় দত্ত। তিনি বলিউডে মুন্না ভাই-খ্যাত অভিনেতা। বর্তমানে তার বয় ৫৬ বছর। এ বয়সেও তিনি নায়কের রোলে অভিনয় করে চলেছে দিব্যি। তার চাহিদা এখনও নির্মাতা, দর্শক ও বুকিং এজেন্টদের কাছে আগের মতোই রয়েছে।

সালমান খান। তিনি বলিউডে ভাইজান হিসেবে খ্যাত। বর্তমানে তার বয়স ৫১ বছর। তাতে কি? এখনও তিনি বলিউডের অত্যন্ত দাপটে একজন অভিনেতা। তার ছবি মানেই হিট। রমরমায়ে চলে বক্স অফিসে। তার আগামী ছবি ‘সুলতান’ মুক্তি পাবে এবারের ঈদে।

আমির খান। তিনি বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’। খুব বেছে বেছে কাজ করেন তিনি। বছরে একটির বেশি ছবিতে কাজ করেন না এই নায়ক। বর্তমানে তার বয়স ৫১ বছর। তার ঝুলিতে অসংখ্য হিট ছবি রয়েছে। তার আগামী ছবি ‘দঙ্গল’। আগামী বড়দিনে মুক্তি পাবে এ ছবিটি।

শাহরুখ খান। তাকে বলিউডের বাদশা বলা হয়। তার বর্তমান বয়স ৫০ বছর। বাদশার ছবি মানেই দারুণ খবর। রমরমা ব্যবসাও হয় তার ছবিতে। তার হিট ছবির সংখ্যাও কম নয়। শাহরুখ খানের আগামী ছবি ‘রইস’। আগামী ঈদে এ ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

অক্ষয় কুমার। বলিউডের খিলাড়ি বলা হয়ে তাকে। অসংখ্য হিট ছবি রয়েছে তার ঝুলিতে। বর্তমানে তার বয়স ৪৮ বছর। এখনও বেশ দাপটে এ অভিনেতা। দর্শক থেকে শুরু করে নির্মাতাদের কাছেও রয়েছে তার দারুণ গ্রহণযোগ্যতা।

সাইফ আলী খান। বলিউডে তাকে ছোট নবাব বলা হয়। বর্তমানে তার বয়স ৪৫ বছর। অন্যান্য খানদের তুলনায় তিনি কিছুটা পিছিয়ে থাকলেও, দমে যাওয়া পাত্র নন তিনি। এখনও তার চাহিদা রয়েছে নির্মাতা ও দর্শকদের কাছে। তার হিট ছবির সংখ্যাও নেহাত কম নয়।

অজয় দেবগণ। বলিউডের বহুমাত্রিক অভিনেতা তিনি। তার অ্যাকশন ও কমেডি ছবি দারুণ প্রশংসিত সর্ব মহলে। এছাড়া রোমান্টিক হিরো হিসেবেও তিনি এক সময় দারুণ সফল ছিলেন। বর্তমানে তার বয়স ৪৭ বছর। তাতে কি? তার অ্যাকশন ও বডি ল্যাঙ্গুয়েজ এখনও যে কোন নতুন নায়ককেও হার মানায়। নির্মাতাদের কাছে তার গ্রহণযোগ্যতা আগের মতোই রয়েছে।

এছাড়া অভিষেক বচ্চনের বয়স বর্তমানে ৪০ বছর, হৃত্বিক রোশনের ৪২ বছর, রণদীপ হুডার ৪০ বছর, জন অ্যাব্রাহামের ৪৩ বছর, ফারহান আখতারের ৪২ বছর। তাদের চাহিদাও রয়েছে দারুণ। এদের হিট ছবির সংখ্যাও কম নয়। নির্মাতাদের কাছে তো বটেই দর্শকদের কাছে তাদের চাহিদা অনেক।






মন্তব্য চালু নেই