মেইন ম্যেনু

বেসরকারি স্কুল কলেজ জাতীয়করণ সময়ের দাবি (৩য় অংশ)

শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড ।আর সেই শিক্ষা ব্যবস্থা যদি হয় মেরুদণ্ডহীন তাহলে কোনোভাবেই একটি জাতি সোজা হয়ে দাড়িয়ে থাকতে পারেনা।আমাদের দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা ঠিক ঐ মেরুদণ্ডহীন শিক্ষা ব্যবস্থার মতো ।কারণ আমাদের দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় কোনো ভাবে মেধাবীদের নিয়ে আসা সম্ভব হচ্ছে না ।তারা ভালো সন্মান ও ভালো আর্থিক ব্যবস্থা না থাকায় অন্যান্য পেশার দিকে ঝুঁকে পড়ছে ।আমরা জানি শিক্ষকতা পেশা সন্মান জনক পেশা কিন্তু বাস্তব কথা হলো তা সঠিক নয়।কারণ এই পেশার লোকের কোনো ক্ষমতা নেই বরং এই পেশার লোকদের ক্ষমতাসীন দলের লোকদের সাথে আতাত করে চলতে হয় ।যার প্রধান কারণ শিক্ষা বাবস্থার এই শ্রেণী বিভাগ ।এই শিক্ষা ব্যবস্থার শ্রেণী বিভাগ যতো দ্রুত সম্ভব দূর করতে হবে এবং শিক্ষকরা যেনো সর্বোচ্চ সন্মান পায় সেই ব্যবস্থা করতে হবে ।আর দেশের সর্বোচ্চ মেধাবীদের এই পেশায় আনার চেষ্টা করতে হবে ।তবেই দেশের মঙ্গল সাধিত হবে।এই শিক্ষকদের কে উন্নত দেশগুলো যেভাবে সন্মানিত করে সেইভাবে সন্মানিত করতে হবে।যেমন আমেরিকায় একজন বিজ্ঞানী ও একজন শিক্ষকে সর্বোচ্চ সন্মান প্রদান করে ।ফ্রান্সের আদালতে শুধু শিক্ষকদেরকে বসতে দেওয়া হয় ।আর জাপানে একজন শিক্ষককে গ্রেফতার করতে অনুমতি নিয়ে আসতে হয় ।শুধু তাই নয় আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে একজন শিক্ষককে সর্বোচ্চ বেতন দেওয়া হয়।সর্বশেষ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন যতো তারাতারি সম্ভব শিক্ষাব্যবস্থাকে জাতীয়করণ করা হোক ।

লেখক

তানভীর আহম্মেদ
(প্রভাষক, পদার্থবিজ্ঞান)
আবাদপুকুর মহাবিদ্যালয়
রাণীনগর, নওগাঁ






মন্তব্য চালু নেই