মেইন ম্যেনু

বেহাল দশায় রিয়াদ বাংলা স্কুল

সৌদি আরব রিয়াদ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ বাংলা শাখার দুর্নীতি এবং কর্মক্ষেত্রে অবহেলার অভিযোগ তুলে স্কুল বাঁচাতে, শিক্ষা বাঁচাতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে এক মতবিনিময় সভা করেছে ওই স্কুলের শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।

রিয়াদের স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে ২৮ সেপ্টেম্বর রাতে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে, নুরুল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরান থেকে তেলাওয়াত করেন মাউলানা আবুল কাসেম ।

মত বিনিময় সভায় স্কুলের বর্তমান পরিস্থিতি, দুর্নীতি ও অবহেলার কথা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন তাজুল ইসলাম, মোস্তফা মুন্সী, আবুল কাসেম, বোরহান উদ্দিন, আলম খান, কাওছার নাছের, এনামুল হক, নুরুল হুদা, মো. সেলিম, ইসমাইল হোস্মাই, বাবুল শেখ, হাবিব, মাসুদ আলি, ইমতিয়াজ, মইন উদ্দিন, আ. রশিদ, আব্দুল হালিম, নুরুল আলাম হাওলাদার, আবুল কাসেম, তোহিদুর রহমান, মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে বেশ কিছু অভিযোগ করেছেন। তার মধ্যে রয়েছে- স্কুলের মিথ্যা প্রচার, কোনো নোটিশ বা উপযুক্ত যুক্তি না দেখিয়ে বার বার ছাত্র-ছাত্রীদের বেতন বাড়ানো, স্কুলের নোংরা পরিবেশ, অনেকটা সময় বিদ্যুৎ থাকে না, শিক্ষকদের অমনোযোগী, নতুন শিক্ষক আনার নামে ভিসা বের করে স্কুল কমিটির ভিসার ব্যবসা, নতুন শিক্ষকরা ক্লাসে কানে হেড ফোন, হাতে মোবাইল নিয়ে বেশি সময় পার করছেন ইত্যাদি।

রিয়াদ বাংলা স্কুল২

বিগত তিন বছরের স্কুলের পরীক্ষার ফলাফল দেখিয়ে অভিভাবকরা বলেন, আমরা যখনই স্কুল কমিটির কাছে কোনো বিষয়ে জানতে চাইতাম, আমাদের দেখছি বা হবে এবং পরিবর্তন হচ্ছে বলে বলে তিনটা বছর শেষ করে দিয়েছে। তবে এ তিন বছরে স্কুলের ফলাফলের যা দশা তা বিগত দিনে কখনো কেও দেখেনি। তাহলে এ কেমন পরিবর্তন?

অভিভাবকরা বর্তমান কমিটির পদত্যাগ চেয়ে বলেন, বর্তমান কমিটি গেল একটি অনুষ্ঠানে স্কুলের সামান্য কিছু হিসেব দেখাতে গিয়ে ৯২ হাজার সৌদি রিয়েল বিল দেখিয়েছেন। এতেও আমাদের দুঃখ ছিল না, যদি না আমাদের সন্তানদের ভালোভাবে শিক্ষাটুকু তারা দিতেন। আমরা প্রবাসে থেকে বাংলা স্কুলে আমাদের বাচ্চাদের পড়াচ্ছি এ কারণে যে, বাচ্চারা যেন দেশ সম্পর্কে জানতে পারে, ভাষা সম্পর্কে জানতে পারে, ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারে, তারা যেন প্রবাসের মাটিতে বাংলাদেশ কে চিনে সুশিক্ষিত হয়ে উঠতে পারে। কিন্তু এখন দেখছি তার বিপরীত।






মন্তব্য চালু নেই