মেইন ম্যেনু

বোবা-কালা হয়ে গেছে ইসি

দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘নির্বাচন কমিশনে (ইসি) দায়িত্বপ্রাপ্তরা নিজেদের চাকরি বাঁচানোর জন্য বোবা-কালা হয়ে গেছে।’

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ) গোলটেবিল মিলনায়তনে শিক্ষক কর্মচারী ঐক্যজোটের আয়োজনে গণতন্ত্র, মানবাধিকার ,আইনের শাসন পুনঃপ্রতিষ্ঠা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দলীয়করণ বন্ধের প্রতিবাদে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির দলীয় প্রার্থীদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হুমকি দেয়া হচ্ছে ফলে আতঙ্কিত হয়ে তারা প্রার্থীতা প্রত্যাহার করছেন অভিযোগ করে রিজভী আহমেদ বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন আমাদের এবং গণমাধ্যমের কোনো অভিযোগ আমলে নিচ্ছে না। সরকারি দলের এ ধরনের অদ্ভুত, অভিনব, ভুতুরে কাণ্ডে নির্বাচন কমিশন তাদের সহযোগিতা করছে।’

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের নিলর্জ্জতা এমন পর্যায়ে গেছে, তারা চোখ-মুখ বন্ধ করে ক্ষমতায় বসে আছেন। সরকার নির্বাচন কমিশনকে নিজের আঁচলে বেঁধে নৌকা মার্কার প্রার্থীদের বিজয়ী ঘোষণা করে। একেবারে উলঙ্গভাবে এ কাজটি করে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন।’

১৯ মার্চ শনিবার বিএনপি জাতীয় কাউন্সিলের ব্যাপারে রিজভী আহমেদ বলেন, ‘আমরা তিন জায়গায় চিঠি দিয়েছি। গণপূর্ত বলে, পুলিশ অনুমতি দিলে আমরা দিব। ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউট থেকে বলা হচ্ছে, কর্তৃপক্ষ দেশের বাইরে আছে। এই রকম একটা বিভ্রান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।’

একদলীয় শাসনব্যবস্থার মত একদলীয় শিক্ষা ব্যবস্থা কায়েম করেছে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। মন্তব্য করে রিজভী বলেন, ‘এভাবে শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধবংস করছে সরকার। খাতায় কিছুই লেখা হচ্ছে না অথচ তাকে পাস করিয়ে দেয়া হচ্ছে। আমাকে অনেক শিক্ষক একথা বলছেন।’

একদিকে পাঠ্যপুস্তক, আরেক দিকে নিজস্ব দর্শন উল্লেখ করে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘ছাত্রছাত্রীদের অনেক বেশি টাকা দিয়ে ফরম পূরণ করতে হচ্ছে, ভর্তি হতে হচ্ছে। যে শিক্ষাব্যবস্থা আওয়ামী হুমকির মুখে থাকে সে শিক্ষা ব্যবস্থায় তো বেশি টাকা দিতেই হবে।’

সংগঠনের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে এসময় আরো বক্তব্য দেন- বিএনপির প্রাথমিক ও গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, সহ-দপ্তর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন, জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম, ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই