মেইন ম্যেনু

বৈদ্যুতিক রাস্তা হবে ইংল্যান্ডে

বৈদ্যুতিক রাস্তা বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইংল্যান্ড। বৈদ্যুতিক শক্তি স্থানান্তরের প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রধান সড়কগুলো নতুন করে তৈরি করার পরিকল্পনা করেছে সরকারি সংস্থা ‘হাইওয়েজ ইংল্যান্ড’।

ভূগর্ভস্থ চার্জিং কিটের মাধ্যমে সেসব রাস্তার উপর দিয়ে চলার সময়ই চার্জ হয়ে যাবে গাড়ি। তবে তার জন্য গাড়িগুলোকে হতে হবে বৈদ্যুতিক ব্যাটারি চালিত।

হাইওয়েজ ইংল্যান্ড ইতোমধ্যে পরিকল্পনাটি বাস্তবায়নের সম্ভাব্যতা নিয়ে গবেষণা শেষ করেছে। এখন তারা পরীক্ষামূলক রাস্তা নির্মাণের জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে দরপত্রও চেয়েছে।

১৮ মাস পরীক্ষা চালানোর পর সংস্থাটি ঠিক করবে প্রধান সড়কে প্রযুক্তিটি ব্যবহার করা যায় কিনা।

তবে পরিকল্পনার বাস্তবায়ন অনেক বেশি ব্যয়বহুল হতে পারে, এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন পরিকল্পনার সাথে সংশ্লিষ্ট এক বিশেষজ্ঞ।

রাস্তায় বৈদ্যুতিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে মোটরযান চার্জের প্রযুক্তি খুব একটা নতুন নয়। সাউথ কোরিয়ার গুমি শহরে ২০১৩ সালে এ ধরনের ১২ কিলোমিটার লম্বা একটি রাস্তা চালু করা হয়। বিশেষ প্রযুক্তির নির্ধারিত কিছু বাস ওই রাস্তার উপর দিয়ে চলার সময় স্বয়ংক্রিয়ভাবেই চার্জ হয়ে যায়।

কাজটি হয় ‘শেপ্‌ড ম্যাগনেটিক ফিল্ড ইন রেজোন্যান্স’ প্রক্রিয়ায়। রাস্তার নিচে বসানো বৈদ্যুতিক কেবল বিদ্যুৎ-চুম্বকীয় ক্ষেত্র তৈরি করে, যা গাড়ির ভেতরে থাকা কয়েলের মধ্য দিয়ে বিদ্যুতে রূপান্তরিত হয়।






মন্তব্য চালু নেই