মেইন ম্যেনু

বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার ল্যাব বানাবে পাকিস্তান

বোলিং অ্যাকশন পরীক্ষার বায়োমেট্রিক ল্যাব বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। বর্তমানে আইসিসি অনুমোদিত ল্যাব আছে অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে, ভারতের চেন্নাইতে, যুক্তরাজ্যের কার্ডিফে, ইংল্যান্ডের লফবুর্গে এবং দক্ষিণ আফ্রিকার প্রিটোরিয়ায়। এই সব ল্যাবে বোলারদের অ্যাকশন পরীক্ষার পাশাপাশি এ সংক্রান্ত বিষয়ে বিভিন্ন কোর্স করা হয়।

তবে ল্যাবগুলোর পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে অনেক দেশই বিভিন্ন সময় প্রশ্ন তুলেছে। বোলিং অ্যাকশন সংক্রান্ত ঝামেলায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে পাকিস্তানের। নিষিদ্ধ হয়ে ফিরে আসলেও আজমলের মতো বোলার হারিয়ে যাচ্ছেন। এই পরীক্ষার ভুক্তোভুগি মোহাম্মদ হাফিজও।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড যদি এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে পারে, তবে এশিয়ার ভেতর তাদের ল্যাবটি সবচেয়ে বেশি আধুনিক হবে। তারা যে পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে, সেখানে ভারতের চেন্নাইয়ের ল্যাবের চেয়েও আধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপনের কথা বলা হয়েছে।

২০০৮ সালে নাসিম আশরাফ পিসিবি চেয়ারম্যান থাকাকালীন এই পরিকল্পনার কথা শোনা যায়। কিন্তু ইজাজ ভাট চেয়ারম্যান হওয়ার পর কাজ থেমে যায়। অর্থনৈতিক এক তদন্তে গড়মিল ধরা পরায় ওই সময় ল্যাব স্থাপনের সিদ্ধান্ত স্থগিত করা হয়। কিছু যন্ত্রপাতি অবশ্য তত দিনে কেনা হয়। কিন্তু সেগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে না।

ক্রিকইনফো বলছে, লাহোর ইউনিভার্সিটি অব ম্যানেজমেন্ট সাইন্সের সঙ্গে (এলইউএমএস) যৌথভাবে চুক্তি করে ল্যাবটি স্থাপন করা হবে। তিন বছরে বিশ্ববিদ্যালয়টিকে ৪ লাখ ৬০ হাজার ইউএস ডলার দেয়া হবে। কিছু কিছু যন্ত্রপাতি দেশটির জাতীয় ক্রিকেট একাডেমীতে পড়ে আছে। জুন থেকে এগুলো চালু করার সিদ্ধান্ত নেয় হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই