মেইন ম্যেনু

ব্যবহার্য জিনিসকে রাখুন নতুনের মত ১২টি কৌশলে

একটা খসখসে সোয়েটার, দাগ পড়ে যাওয়া নতুন জুতো, ভাঙা জিপার এসব অস্বস্তিকর সমস্যা আর নয়। এসব সমস্যাকে আমরা অনেক স্বাভাবিক ধরে নিই। কিন্তু এসবেরই আছে কিছু সহজ সমাধান। মাত্র কয়েকটি কৌশলে আপনি আপনার ব্যবহার্য জিনিসকে রাখতে পারেন নতুনের মত। আসুন জেনে নিই-

১। সোয়েটার
উলের সোয়েটার নতুনের মত রাখা একটি কঠিন কাজ। দ্রুতই রং হারিয়ে খসখসে হয়ে যায়। সোয়েটারের নতুনত্ব ধরে রাখতে একে প্রতিবার ব্যবহারের আগের রাতে ফ্রিজে রাখুন। খসখসেভাব দূর হবে।

২। কাপড়ের দূর্গন্ধ দূর করুন
কাপড় ধোঁয়ার পর কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল ওয়েল এবং পারফিউম মিশ্রিত পানিতে একবার ডুবিয়ে তুলুন। শুকানোর পর সুগন্ধ ছড়াবে। পানিতে ভিনেগারও ব্যবহার করতে পারেন। এতে কোন সুগন্ধ আসবে না। কিন্তু দূর্গন্ধ সহজে দূর হবে।

৩। ফাউন্ডেশন ক্রিমের দাগ
অনেক সময় মেকআপ করার সময় ড্রেসের গলায় ফাউন্ডেশন ক্রিম লেগে যায়। এই ক্রিম তুলতে কাজে লাগান শেভিং ক্রিম। দাগের জায়গায় সামান্য শেভিং ক্রিম লাগান, এরপর ধুয়ে ফেলুন। দাগ চলে যাবে পুরোপুরি।

৪। লিপস্টিকের দাগ তুলতে
যে ধরনের পোশাকগুলো শুধু ড্রাই ওয়াশ করা হয় সেগুলোর ক্ষেত্রে এই টিপস কাজে দেবে না। তবে যদি সাধারণ ওয়াশের কাপড়ে লিপস্টিক লেগে যায় তাহলে সহজ সমাধান হল হেয়ার স্প্রে দিয়ে স্প্রে করুন। কয়েক মিনিট রেখে দিন। এরপর সামান্য ঘষে ধুয়ে ফেলুন।

৫। চামড়ার জুতোর দাগ
অনেক সময় পানি বা আর কিছু পড়লে চামড়ার জুতোয় দাগ পড়ে যায়। চিন্তিত হবেন না। নরম একটি টুথ ব্রাশ এবং ভিনেগার নিন। টুথব্রাশটি ভিনেগারে ভিজিয়ে জুতোর দাগের জায়গায় ঘষুন। নিমিষেই দাগ উঠে যাবে। জুতোও চকচক করবে।

৬। চামড়ার জুতো ভাল রাখতে
চামড়ার জুতো সহজেই নষ্ট হয়ে যায়। বিশেষ করে ফাঙ্গাসের সমস্যা হয়। এক্ষেত্রে কাজে দেবে পেট্রোলিয়াম জেলি। তুলোর উপর পেট্রোলিয়াম জেলি মাখিয়ে চামড়ার উপর ঘষুন। জুতো জোড়া থাকবে একদম পারফেক্ট।

৭। যখন শু-পলিশ নেই
বাসা থেকে বের হবেন আর দেখলেন ম্যাচিং জুতোটা দেখতে একদম পুরাতন লাগছে? আবার জুতোর পলিশও নেই? চিন্তার কিছু নেই। লোশন নিন। টিস্যুর উপরে লোশন নিয়ে জুতোটা আস্তে আস্তে মুছুন। দেখুন, পুরোনো জুতো আবার প্রাণ ফিরে পাবে।

৮। ঢিলে হয়ে যাওয়া বোতাম
অনেক সময় জামার বোতাম ঢিলে হয়ে যায়। স্থায়ীভাবে শক্ত করে লাগিয়ে ফেলতে পারেন বোতামটি। বোতামের সেলাইয়ের ওপর স্বচ্ছ নেইল পলিশ লাগান। সুঁই সুতোর কাজ জানার কোন দরকার নেই।

৯। সানগ্লাস
অনেক সময় সানগ্লাসের হাতল ঢিলে হয়ে যায়। আপনার কাছে যদি স্ক্রু ড্রাইভার না থাকে, তাহলে সাময়িক সমাধান হিসেবে বেছে নিতে পারেন ক্লিয়ার নেইলপলিশ। এ যাত্রায় কাজ চলে যাবে আপনার নিশ্চিত।

১০। তেলের দাগ দূর করতে
পোশাকে তেলের দাগ লেগে যাওয়া খুবই সাধারণ ঘটনা। সমাধানও কিন্তু সহজ। ডিসওয়াশের সাবানটি ঘষে নিন দাগ লাগা জায়গায়। থালাবাসনের তেল দূর করার মত এটি কাপড়ের তেলও দূর করবে।

১১। ঘামের দাগ দূর করুন
সাদা পোশাকে বিশেষ করে বগলের নীচে ঘামের দাগ বসে যায়। কয়দিন পরই পছন্দের পোশাকটি তাই আর পরা যায় না। লেবুর রস বা বেকিং সোডা ব্যবহার করুন। হালকা দাগের ক্ষেত্রে পানি আর লেবুর রসই কাজে দেবে। কিন্তু বেশী দাগ পড়ে গেলে বেকিং সোডা পানির সাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন, দাগের উপর লাগিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন, এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

১২। জুতার দূর্গন্ধ
স্নিকার্স বা এধরণের জুতায় দূর্গন্ধ হয় প্রায়ই। কিন্তু এতবার তো ধুয়ে ফেলা সম্ভব না। বাইরে থেকে এসে জুতার বিকট গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে চাইলে এর মধ্যে ছিটিয়ে দিন বেকিং সোডা। সহজেই পাবেন মুক্তি।






মন্তব্য চালু নেই