মেইন ম্যেনু

ব্যায়ামের আগে এবং পরে কী খাবেন জেনে নিন

নিরোগ শরীর, সুস্বাস্থ্যের জন্য ব্যায়ামের বিকল্প নেই। শরীরকে ফিট রাখতে ব্যায়াম করার প্রয়োজন রয়েছে। আপনি প্রতিদিন ব্যায়াম করুন কিংবা সপ্তাহে এক দুই দিন ব্যায়াম করুন, ব্যায়ামের সাথে খাওয়া দাওয়াটা ঠিকমত করতে হবে। কারণ এই বিষয়ে লক্ষ্য না রাখলে ব্যায়াম থেকে কার্যকর ফল পাওয়া সম্ভব হবে না। ব্যায়ামের আগে এবং পরে কী খাবেন তা নিয়ে আজকের এই ফিচার।

ব্যায়ামের আগে:

১। ব্যায়াম বা জিমে যাওয়ার এক ঘণ্টা আগে লো ফ্যাট কিন্তু উচ্চ কাবোর্হাইড্রেট জাতীয় খাবার খাওয়া উচিত।তা হতে পারে আপেল, এক গ্লাস দুধ, কাঠবাদাম। এছাড়া কর্নফ্লেকস, দুটি টোস্ট খেতে পারেন। কলাও খেতে পারেন। এটি ব্যায়ামের আগে শরীরে শক্তি জোগাবে।

২। মিষ্টি আলু সিদ্ধ অথবা ব্রকলি সিদ্ধ খেতে পারেন। স্বাদ বৃদ্ধির জন্য অলিভ অয়েল এবং লবণ ছিটিয়ে দিতে পারেন।

৩। ওটমিল (১/২ কাপ), বিভিন্ন প্রকার ফল( ১ কাপ) খাওয়া যেতে পারে ব্যায়ামের আগে।

৪। দৌড়াতে পছন্দ করেন? তাহলে দৌড়ানোর আগে কিছু পরিমাণ টকদই খান। টকদই খুব সহজে হজম হয়ে যায়, আপনার পেট ভরিয়ে দেবে কিন্তু পেট ভারী অনুভব হবে না। এরসাথে পছন্দ অনুযায়ী ফল মিশিয়ে খেতে পারেন।

৫। কখনোই খালি পেটে ব্যায়াম করতে যাবেন না। ব্যায়ামের ফলে যে চাপ পড়বে সেটি শরীরের শর্করার মাত্রা কমিয়ে দিতে পার। যার ফলে হাইপোগ্লাইসেমিয়া হয়ে শরীর অবশ হয়ে যেতে পারে। তাই খালি পেটে ভারী ব্যায়াম না করাই ভাল।

ব্যায়ামের পরে:

১। প্রোটিনের অন্যতম উৎস হল ডিম। ব্যায়ামে যে পরিমাণ ক্যালরি ব্যয় হয় তা পুনরায় ফিরে পেতে ডিমের জুড়ি নেই। বিভিন্ন সবজি দিয়ে ডিমের অমলেট তৈরি করে নিতে পারেন। এরসাথে অ্যাভোকাডো খেতে পারেন।

২। ব্যায়ামের সময় এবং পরে প্রচুর পানি পান করুন। ব্যায়াম করার কারণে শরীর থেকে ঘামের মাধ্যমে পানি বের হয়ে যায়। এই পানি পূরণের জন্য প্রচুর পানি পান করুন। তবে ভারী কোন ব্যায়াম করলে পানির সাথে কোন ভালো মানের স্পোর্টস ড্রিঙ্ক পান করতে পারেন।

৩। প্রোটিনের চাহিদা পূরণের জন্য এক টুকরো গ্রিলড চিকেন অথবা চিকেন স্যান্ডউইচ রাখতে পারেন। এরসাথে কিছু পরিমাণ অলিভ অয়েলে ভাজা সবজি রাখা যেতে পারে। প্রোটিনের পাশাপাশি আঁশ জাতীয় খাবার এবং শাকসবজি রাখুন।

৪। এক গ্লাস চকলেট দুধ স্বাদ মেটানোর পাশাপাশি আপনার শরীরের চাহিদা পূরণ করবে। গবেষণায় দেখা গেছে এক গ্লাস চকলেট দুধে প্রোটিন, কাবোর্হাইড্রেট, সোডিয়াম, চিনি এবং ক্যালসিয়াম থাকে যা আপনাকে দ্রুত এ্যার্নাজি প্রদান করে।

ব্যায়াম করার পর অতিরিক্ত খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। অতিরিক্ত খাওয়া আপনার সারাদিনের কষ্টকে ব্যর্থ করে দিতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই