মেইন ম্যেনু

ব্রণ তাড়ায় ও ত্বকের লাবণ্য বাড়ায় গুড়

শীত মানেই পিঠা। মজার মজার হরেক রকমের পিঠা। পিঠার স্বাদ তৈরি করে যে উপাদানটি সেটা হলো গুড়। শীতের সময় খেজুরের গুড় বা পাটালি গুড়, আখ বা ইক্ষুর গুড় পিঠা তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। গুড়ের অনেক স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে। তাছাড়া, শারীরিক সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে গুড়ের ভূমিকা রয়েছে।

-ব্রণ এবং ফুসকুড়ি দূর করে গুঁড়। প্রতিদিন একটি লেবুর সমান গুড় খেলে চেহারা পরিষ্কার, দাগ দূর করা, ফুসকুড়ি নির্মূল এবং ত্বকের লাবণ্য বাড়াতে সাহায্য করে।

-গুড় তারুণ্য ধরে রাখতে এবং ত্বকে বলিরেখা পড়া থেকে রক্ষা করে। অকাল বার্ধক্য রোধে আয়ুর্বেদিক ওষুধ তৈরিতে গুড়, তিলের বীজ এবং বিভিন্ন ঔষুধি গাছের সংমিশ্রণ ব্যবহার করা হয়।

-ঝকঝকে বা দ্যুতিময় চুলের জন্য একটি ছোট পাত্রে দুই চামচ মুলতানি মাটি, পানি এবং গুঁড়ের মিশ্রণ তৈরি করে চুলে লাগাতে পারেন। ঠিক দশ মিনিট পর ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে আপনার চুলের স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য দুটোই বৃদ্ধি পাবে।






মন্তব্য চালু নেই