মেইন ম্যেনু

ব-দ্বীপের প্রকাশকসহ তিনজন রিমান্ডে

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগের মামলায় ব-দ্বীপ প্রকাশনীর প্রকাশক ও সম্পাদকসহ তিনজনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম আমিরুল হায়দার চৌধুরী এ আদেশ দেন।

আদালত ‘ইসলাম বির্তক’ বইয়ের প্রকাশক ও সম্পাদক শামসুজ্জোহা মানিককে পাঁচ দিন, প্রকাশনীর কর্মকর্তা ফকির তসলিম উদ্দিন কাজলকে দুইদিন ও লেখক শামসুল আলম চঞ্চলকে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার এসআই মাসুদ রানা আসামিদের আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার মতো কিছু লেখকের বই ছাপানো বলে আমরা জানতে পেরেছে পুলিশ।

ওই প্রকাশনী থেকে প্রকাশ হওয়া কিছু বই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচিত হচ্ছিল। কেন এবং কী উদ্দেশ্যে ওই বইগুলো ছাপানো হয়েছে, তা জানতে আটককৃতদের সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়া প্রয়োজন। রিমান্ড আবেদনের উপর শুনানি শেষে বিচারক ওই আদেশ দেন।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয় এমন বই অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশের অভিযোগে ব-দ্বীপ প্রকাশনীর স্বত্ত্বাধিকারী শামসুজ্জোহা মানিকসহ তিনজনকে সোমবার রাতে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তাদের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ (২) ধারায় তাদের বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়েছে।

এর আগে ধর্ম অবমাননার দায়ে অমর একুশে বইমেলার ব-দ্বীপ প্রকাশনীকে সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ব-দ্বীপ প্রকাশনা থেকে প্রকাশিত শামসুজ্জোহা মানিকের অন্যান্য বইগুলো হলো ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্রের সমস্যা’, ‘ধর্ম ও বাঙ্গালীর পুনরেকত্রীকরণ’, ‘ধর্মের রাজনীতি ও আধুনিক সভ্যতা’, ‘বাংলাদেশের দুর্বৃত্তায়ন’ ‘নারী ও ধর্ম’, ‘বাংলাদেশের সঙ্কট’, ‘ধর্ম ও যাতাকলে বাঙ্গালী জাতি’, ‘ইসলামের ভূমিকা ও সমাজ উন্নয়নের সমস্যা’, ‘ইসলাম বিতর্ক’, ‘ইসলামে নারীর অবস্থান’ প্রভৃতি।






মন্তব্য চালু নেই