মেইন ম্যেনু

ভক্তদের সাহায্য চাইলেন শচীন!

‘তাহলে ঈশ্বরও বাস মিস করেন’- শনিবার উইম্বলডন টেনিসের নারী ডাবলসের ফাইনাল দেখতে যাওয়ার পথে শচীন টেন্ডুলকার বাস মিস করার পর সাহায্যের জন্য আবেদন করলে এক ভক্ত মন্তব্য করেন। বাস মিস করলেও উপস্থিত বুদ্ধির কারণে ফাইনাল ম্যাচটি দেখতে কোনো সমস্যা হয়নি সর্বকালের সেরা এই ক্রিকেটারের।

আধুনিক ক্রিকেটের ব্রাডম্যান, ভারতের সাবেক ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার শনিবার উইম্বলডন টেনিসের নারী ডাবলসের ফাইনালে সানিয়া মির্জা-মার্টিনা হিঙ্গিস জুটির খেলা দেখার জন্য বের হন। মাঝপথে ইংল্যান্ডের হেলসিতে একটি গ্রাম পরিদর্শন করতে গেলে তাকে রেখেই শেষ বাসটি চলে যায়। স্বদেশি সানিয়া মির্জার ফাইনাল ম্যাচ তো আর মিস করা যায় না। তাই কী করবেন ভেবে ঠিক করলেন, টুইটারে ভক্তদের কাছে সাহায্য চাইবেন।

যেই ভাবা সেই কাজ। এই কিংবদন্তী ক্রিকেটার টুইটারে সাহায্যের আবেদন চেয়ে পোস্ট করলেন, ‘গ্রেট হেসলি অক্সফোর্ডশায়ারে শেষ বাসটি মিস করেছি, কেউ কি আমাকে একটা লিফট দিতে পারেন?’

সঙ্গে সঙ্গে ভক্ত-সমর্থকদের কাছ থেকে অসংখ্য সাড়া পেতে থাকেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি করা এই কিংবদন্তী তারকা।

একজন টুইট করেন, ‘হায়রে দুর্ভাগা বাস ড্রাইভার! আরেকজন তো বলে বসলেন, ‘তাহলে ঈশ্বরও বাস মিস করেন!’

sachinএসময় ইনস্টাগ্রামেও ছবিসহ সাহায্যের আবেদন চেয়ে পোস্ট করেন শচীন। আশির মিহির নামের এক ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী তাতে লিখেন, ‘আপনাকে লিফট দেয়া তো ঈশ্বরকে লিফট দেয়ার সমান। আশা করি আমি সেটি পারবো।’

আরেকজন বলেন, ‘অক্সফোর্ডশায়ারের একজন অধিবাসী হিসেবে আমি ঈশ্বরকে উদ্ধার করতে অল্প সময়ের মধ্যেই পৌঁছে যাবো।’

উপস্থিত বুদ্ধিমত্তার কারণে সেদিন শচীনকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়নি। এক ভক্ত গাড়িতে করে লিফট দিয়ে কিংবদন্তী ক্রিকেটারকে উইম্বলডন দেখার সুযোগ করে দেন।

এদিকে ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা কিন্তু হতাশ করেননি শচীন টেন্ডুলকারকে। সানিয়া-হিঙ্গিস জুটি উইম্বলডনের নারী ডাবলসের ফাইনালে রাশিয়ান জুটি একাতেরিনা মাকারোভা ও এলিনা ভেসলিনাকে হারিয়ে মর্যাদার উইম্বলডন জিতেন।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই