মেইন ম্যেনু

ভাইয়ের বউকে স্পর্শ করেও দেখিনি

ভাই বউকে স্পর্শ করেও দেখিনি সেদিন। তাই গায়ে হাত তোলার কোনও প্রশ্নই ওঠে না। সম্প্রতি নাওয়াজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন নাওয়াজের ভাই বউ। অভিযোগ, পণের দাবিতে তাঁর গায়ে হাত তুলেছেন নাওয়াজ।

তবে এই সব অভিযোগ প্রমাণ সহ একেবারে উড়িয়ে দিলেন নাওয়াজ। সিসিটিভি ফুটেজ দেখিয়ে জানিয়ে দিলেন ‘সফট টার্গেট’ করা হচ্ছে তাঁকে। সেই সঙ্গে বলেন, “আমি যদি সাধারণ কেউ হতাম, তা হলে এভাবে জড়াত না কেউ৷ ঘটনাটি কাগজের হেডলাইন হত না”।

উত্তরপ্রদেশের সেই মুজাফফর নগরের পুলিশ সুপারিন্টেন্ডেন্ট-এর কাছে অভিযোগ দায়ের করেন নাওয়েজের ভাই মিনাজের স্ত্রী৷ তিনি বলেন, বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকেদের হাতে তাঁকে নির্যাতিত হতে হয়েছে পণের জন্য৷ শুধু তাই নয়! মিনাজের বউয়ের কথায়, ২৮ সেপ্টেম্বর নাকি ভাইবউয়ের গায়ে হাত তুলেছিলেন নাওয়াজ। তবে এই দাবি নাকি পুরো ভুল!

নাওয়াজ জানিয়ে দিয়েছেন, ওদিন ভাই বউয়ের গায়ে হাত তোলা তো দূরের কথা স্পর্শও করেনি তাঁকে। আর ই পুরো ঘটনার জন্য নাওয়াজ দায়ি করেছেন ভাই বউয়ের এক আত্মীয়কে। তাঁর কথায়, “ভাইবউয়ের ওই আত্মীয় সস্ত্রীক তাঁদের বাড়িতে এসেছিলেন চুরির উদ্দেশ্যে৷ বলেন, ‘আপনারা যদি সিসিটিভি ফুটেজটি দেখেন, যা ইউটিউবেও পোস্ট করেছি আমি, তা হলে পরিষ্কার বুঝবেন সেদিন আমি ভাইবউয়ের গায়ে হাতও তুলিনি৷ ওরা অভিযোগ করেছে আমি অন্তঃসত্ত্বা ভাতৃবধূর পেটে আঘাত করেছি৷ তা যে মিথ্যে, তা বুঝতেই পারছেন৷ ওঁরা দাবি করেছিলেন যখন ঘটনাটি ঘটে, তখন নাকি সিসিটিভির সু্যইচ অফ ছিল৷ কিন্ত্ত দেখতেই পাচ্ছেন সে দাবি মিথ্যে”।-কলকাতা২৪






মন্তব্য চালু নেই