মেইন ম্যেনু

ভারতের একটি পুজা মন্ডপের কারণে দু’দেশের সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিপাকে

জুলফিকার আলী, কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা কলারোয়ায় একটি পুজা মন্ডপের কারনে দু’দেশের শত শত শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষের নাজেহাল পোহতে হচ্ছে, সেই সাথে মাইকের আওয়াজে শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিপাকে রয়েছে অভিভাবকরা, মেধাহীন হয়ে পড়ছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সরে জমিনে এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে কলারোয়া উপজেলার সোনাবাড়ীয়া ইউনিয়নের দক্ষিন ভাদিয়ালী গ্রামের নদীর ওপারে ভারতের হাকিমপুর পালপাড়া এলাকায় সম্প্রতি একটি নতুন কুমারী মাতা মন্দির স্থাপন করেন সেখানকার হিন্দু ধর্মের লোকজন। সেখানে রাত-দিন ২৪ঘন্টা উচ্চস্বরে মাইক দিয়ে পুজা প্রার্থনা করা হয়। এলাকাবাসীরা জানায় হাকিমপুর পালপাড়ার কুমারী মাতা মুন্দিরে সভাপতি স্বপন কুমার, সাধারণ সম্পাদক গনেশ পাল ও মুন্দিরের পুরহিত শ্রী জয়ন্ত কুমার দায়িত্বে রয়েছেন।

এদিকে হাকিমপুর ফকিপাড়ায় স্কুলের প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন ও দেড়শ বছরের পুরাতন জামে মসজিদের ইমাম ইসমাইল হোসেন বলেন, স্কুল চলাকালে উচ্চস্বরে মাইক বাজলে স্কুলের ছাত্র- ছাত্রীদের পড়া শুনার ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।

সাথে সাথে মসজিদের মুছলিগনের নামাজ পড়তে বেঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। এদিকে কলারোয়ার ভাদিয়ালী স্কুলের শিক্ষার্থীদের এই মাইকের আওয়াজ কানে সব সময় বাজতে থাকায় পড়াশুনায় মনোযোগ হতে পারছে না। মসজিদের মুছলিগন নামাজ পড়তে বেঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। বিষয়টি এলাকাবাসী জনস্বার্থে উভয় দেশের স্থানীয় সরকারের কাছে সর্বমহলের সুদৃষ্টি কামনা করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই