মেইন ম্যেনু

ভারতের প্রথম বুলেট ছুটবে সমুদ্রের নীচ দিয়ে! কলকাতাতেও হবে?

২০২৩ সালে ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেন চলবে মুম্বই থেকে আহমেদাবাদের মধ্যে। রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু নিজেই একথা জানিয়েছেন। মুম্বই থেকে আহমেদাবাদ রুটেই প্রস্তাবিত এই ট্রেন চলাচল করবে। কিন্তু সবথেকে বড় আকর্ষণ, যাত্রাপথের একটা অংশে সমুদ্রের নীচ দিয়ে ছুটবে দেশের প্রথম বুলেট ট্রেন।

মুম্বই থেকে আহমেদাবাদের মধ্যে ৫০৮ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করার সময়ে সর্বোচ্চ ৩৫০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা গতিতে ছুটবে বুলেট ট্রেন। আর গড় গতি হবে ঘণ্টায় ৩২০ কিলোমিটার। সমীক্ষক সংস্থা জাপানিজ ইন্টারন্যাশনাল করপোরেশন এজেন্সি বা জাইকা-র প্রস্তাব অনুযায়ী, এই রুটে ২১ কিলোমিটার পথ সমুদ্রের নীচে সুড়ঙ্গের মধ্যে দিয়ে যাবে বুলেট ট্রেন। মুম্বইয়ের থানে থেকে ভিরারের মধ্যে সমুদ্রের নীচে এই সুড়ঙ্গ তৈরি হবে। বুলেট ট্রেন চালানোর জন্য যে প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে, তাতে মোট খরচ পড়বে ৯৭,৬৩৬ কোটি টাকা। এর ৮১ শতাংশ অর্থই জাপানের থেকে ঋণ হিসাবে নেওয়া হবে। ৫০ বছরে সেই ঋণ শোধ করবে ভারত। জাপানী সংস্থার প্রস্তাব অনুযায়ী, প্রথম বছরেই দিনে অন্তত ৭০টি ট্রেন চালাতে হবে। ২০১৮ সালের শেষ দিকে প্রকল্পের কাজ শুরু হওয়ার কথা।

কিন্তু বুলেট কী শুধু মুম্বই এবং আহমেদাবাদের মধ্যেই চলাচল করবে? রেলমন্ত্রী সুরেশ প্রভু অবশ্য আশ্বস্ত করে বলেছেন, দেশের অন্যান্য মেট্রোর শহরগুলিকেও বুলেট ট্রেনের মাধ্যেমে যুক্ত করা যায় কি না, সেই সমীক্ষাও করা হচ্ছে। ফলে আশা থাকছে কলকাতারও।






মন্তব্য চালু নেই