মেইন ম্যেনু

ভারতের ফারাক্কা নীতি বন্ধুত্বের নয় : খালেদা

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, ফারাক্কা বাঁধ দিয়ে যখন পানি দরকার হয় তখন বন্ধ করে দেয়, যখন প্রয়োজন হয় তখন দেয়া হয় না, এটা দুঃখজনক। এটা বন্ধুত্ব নয়। এসব বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করতে হবে।

দলের ৩৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, একজনের মাথা উঁচু থাকবে আরেকজনের নিচু থাকবে এটা বন্ধুত্ব নয়। ভারতের সঙ্গে যেসব চুক্তির কথা শোনা যাচ্ছে, তা জনগণের পক্ষে নয়। চুক্তিগুলো জনগণের বিপক্ষে।

খালেদা জিয়া বলেন, আবার এমনও চুক্তি হয়েছে যা অনেকে জানেও না। যেমন রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের মতো দেশবিরোধী চুক্তি।

তিনি বলেন, মুখে তারা (সরকার) অনেক দেশপ্রেমের কথা বলে কিন্তু কারো কোনো দেশপ্রেম নেই। তারা নিজেদের মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তি বলে দাবি করে, তাহলে দেশের ক্ষতি করছে কেন? আপনারাই (বিএনপির নেতাকর্মী) প্রকৃত দেশপ্রেমিক।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান দক্ষিণ এশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করেছেন উল্লেখ করে খালেদা জিয়া বলেন, এটা কার অবদান? জিয়াউর রহমানের। তিনি সবার সঙ্গে সুসম্পর্ক চেয়েছেন। বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মাধ্যমে সম্প্রীতি স্থাপন করেছিলেন। সেই ধারাবাহিকতা আমরাও অব্যাহত রেখেছি।

তিনি (জিয়াউর রহমান) মাথা উঁচু করে সবার সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক করে এগিয়ে গেছেন। কারো কাছে মাথা নোয়াননি। সেই ধারাবাহিকতা আমরাও অনুসরণ করছি।






মন্তব্য চালু নেই