মেইন ম্যেনু

ভারতের বিপক্ষে মুস্তাফিজের সেই বিধ্বংসী ছয়টি বল

গেল জুনে ভারতের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ খেলেছিল বাংলাদেশ। তিন ম্যাচের প্রথম দুটি দাপটের সঙ্গে জিতে ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের রেকর্ড গড়ে বাংলাদেশ। তবে তিনটি ম্যাচেই বল হাতে আগুণ ঝড়ান তরুণ পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। ভারতের বিপক্ষে ৩ ম্যাচে তিনি নিয়েছিলেন ১৩ উইকেট (৫+৬+২)।

তবে মুস্তাফিজ সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছিলেন ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে। যেখানে তিনি ১০ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে নিয়েছিলেন ৬ উইকেট। আগের ম্যাচে মুস্তাফিজকে ইচ্ছাকৃতভাবে ধাক্কা দেওয়া মহেন্দ্র সিং ধোনি, রোহিত শর্মা, সুরেশ রায়না, বরীন্দ্র জাদেজা, অক্ষর প্যাটেল ও অশ্বিন কাটার মুস্তাফিজের শিকারে পরিণত হন।

পাকিস্তানের বিপক্ষে গেল এপ্রিলে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অভিষেক হওয়ার পর বল হাতে ভেল্কি দেখিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এবার মুস্তাফিজ স্থান পেয়েছেন আইসিসির বর্ষসেরা একাদশে। এমন সময়ে চলুন স্মৃতি রোমন্থন করা যাক ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে তার সেই বিধ্বংসী ছয়টি বলের।

রোহিত শর্মা : ইনিংসের দ্বিতীয় বল ছিল এটি। বলের গতিটা ছিল বেশি। কিন্তু বুঝে উঠতে পারেনিনি রোহিত শর্মা। বলটা যেভাবে মারতে চেয়েছিলেন সেভাবে হয়নি। বল চলে যায় পয়েন্টে দাঁড়ানো সাব্বির রহমান রুম্মনের হাতে। অ্যাক্রোবেটিক স্টাইলে সাব্বির সেটা লুফে নেন।

সুরেশ রায়না : চিরচেনা কাটার। এবার প্রলুব্ধ হলেন সুরেশ রায়না। বাউন্সার বল মারতে গিয়ে টপ এজ হলেন রায়না। তার ব্যাটে লেগে বল চলে যায় উইকেটরক্ষক লিটন দাসের হাতে।

মহেন্দ্র সিং ধোনি : মুস্তাফিজকে ইচ্ছাকৃতভাবে ধাক্কা দেওয়ায় সমালোচিত হয়েছিলেন ধোনি। এবার সেই মুস্তাফিজের বলে আউট হলেন তিনি। উইকেটে থিতু হওয়া ধোনি ক্যাচ তুলে দেন সৌম্য সরকারের হাতে।

অক্ষর প্যাটেল : বুঝতেই পারেননি বলটি। বলের লাইনে না গিয়ে ব্যাট চালান নতুন ব্যাটসম্যান অক্ষর প্যাটেল। বল গিয়ে আঘাত হানে তার পায়ে। মুস্তাফিজের আবেদনে সাড়া দেন আম্পায়ার।

রবিচন্দ্রন অশ্বিন : আগের ম্যাচেও উইকেটরক্ষকের হাতে ধরা পড়েছিলেন। দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও চিত্র বদলায়নি। মুস্তাফিজের দারুণ ডেলিভারি বুঝতে পারেননি রবিচন্দ্র অশ্বিন। ব্যাটের কানায় লেগে চলে যায় লিটন দাসের হাতে।

রবীন্দ্র জাদেজা : বৃষ্টির পর এবং নিজের দশ ওভারের কোটার শেষ বলে রবীন্দ্র জাদেজাকে আউট করেন মুস্তাফিজ। সামনে এগিয়ে এসে মারতে যান জাদেজা। ব্যাট এবং পায়ে লেগে স্টাম্প উড়িয়ে নেয় জাদেজার।






মন্তব্য চালু নেই