মেইন ম্যেনু

ভারতে কালো টাকার মালিক মাত্র ৬৩৮!

ভারতে কালো টাকার মালিক মাত্র ৬৩৮! বুধবার ছিল ভারতে কালো টাকা উদ্ধারে সরকারের স্বেচ্ছা ঘোষণার প্রকল্পের শেষ দিন। কর ফাঁকি দিয়ে বিদেশে জমানো গোপন টাকার হিসেব স্বেচ্ছায় জানানোর একটি সুযোগ দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। এতে সাড়া দিলেন সর্বমোট ৬৩৮ জন।

স্বেচ্ছা ঘোষণার প্রকল্পে প্রথম দিকে সেরকম সাড়া না মিললেও শেষ দিনে রীতিমতো লাইন পড়ে যায় দিল্লির আয়কর দপ্তরে। দেশে একটিই দপ্তর ঠিক হয়েছিল এই কাজের জন্য। তাই নানা রাজ্য থেকেই আসতে হয়েছে লোককে। তবে ঘোষণাকারীরা নিজেরা তেমন আসেননি, চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট বা প্রতিনিধিদেরই পাঠিয়েছেন।

৬৩৮ জনের ঘোষিত সম্পদের মোট পরিমাণ ৩,৭৭০ কোটি রুপি।

কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ কর বোর্ড (সিবিডিটি)এর চেয়ারম্যান অনীতা কাপুর জানান, ঘোষণাকারীদের মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৩৮ জনের মতো। মোট ৩,৭৭০ কোটি রুপির হদিশ পাওয়া গেল। এবার কর আদায়ের পালা। আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে কর দিতে হবে ৩০ শতাংশ হারে, সঙ্গে জরিমান আরও ৩০ শতাংশ।

মনে করা হচ্ছে, বিদেশে ভারতীয়দের কালো টাকার যে পাহাড় জমে আছে বলে নানা সূত্র থেকে অনুমান করা হয়, তার তুলনায় এই টাকা একেবারেই সামান্য।

সিবিডিটি-র বক্তব্য, স্বেচ্ছায় জানানোর সুযোগ পাওয়ার পরও যারা গোপন রাখলেন আয়, তাদের বিরুদ্ধে এবার কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তথ্যসূত্র : মেট্রো ইন্ডিয়া, আজকাল






মন্তব্য চালু নেই