মেইন ম্যেনু

ভারতে গরু নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে শাস্তির নির্দেশ

ভারতে গরু রক্ষার নামে কেউ বাড়াবাড়ি করলে কিংবা আইন হাতে তুলে নিলে তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গতকাল মঙ্গলবার এ বিষয়ে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে রাজ্য সরকারকে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

এর আগে নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, গরু রক্ষার নামে যারা দোকান খুলে বসেছে, তাদের বরদাশত করা হবে না। গরু রক্ষার নামে যারা জুলুম করছে তাদের সমাজবিরোধী হিসেবে গণ্য করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মোদির নির্দেশের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এ বিষয়ে রাজ্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার।

ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ভারতের জাতির জনক মহাত্মা গান্ধী ‘গোরক্ষা’ মানে শুধু গরু বাঁচানো বোঝাননি, বরং যারা অসহায় ও দুর্বল তাঁদের রক্ষা করা বুঝিয়েছিলেন। ভারতের সংস্কৃতিতে গরুর এক বিশেষ মর্যাদা রয়েছে। ‘গোমাতা’ বিপন্নের অজুহাতে আইন হাতে তুলে নিয়ে কাউকে মারধর করা ঠিক নয়।

সম্প্রতি ভারতের কয়েকটি স্থানে গরু রক্ষার নাম করে আইন হাতে তুলে নেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনা বিশ্বে ভারতকে হেয় করেছে বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

রাজ্য সরকারকে দেওয়া চিঠিতে আরো বলা হয়েছে, গরু রক্ষার নামে কেউ আইন হাতে তুলে নিলে আইন মেনে দ্রুত সেই অপরাধীর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। জাতি ধর্ম কিছুই বাছ-বিচার না করে আইন হাতে তুলে নেওয়া ব্যক্তির কড়া শাস্তি দিয়ে আইনের শাসনকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে হবে।

ভারতের যেসব রাজ্যে গরু হত্যা নিষিদ্ধ করা হয়েছে, সেসব রাজ্যে তা অপরাধ বলেই গণ্য করা হবে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই