মেইন ম্যেনু

ভারতে গরু পাচারের গুজবে বিজেপি কর্মী নিহত

গরু পাচারের গুজবে এবার ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে এক বিজেপি কর্মীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে গোরক্ষকরা। স্থানীয় পুলিশ বলছে, বিজেপির সহযোগী উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিশ্ব হিন্দু পরিষদ আর বজরং দলের কর্মীরাই এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত। খবর বিবিসির।

ওই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১৭জনকে আটক করেছে পুলিশ। তবে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ আর বজরং দল এই ঘটনায় জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে।

কর্ণাটকের পুলিশ বলছে, উদুপি জেলার বাসিন্দা প্রবীণ পূজারী নামের এক ব্যক্তি গতকাল নিজের একটি ছোট টেম্পোতে করে গোটা তিনেক গরু নিয়ে যাচ্ছিলেন।

সেই সময়েই পূজারী এবং তাঁর এক সঙ্গীকে আক্রমণ করা হয়। তাদের অভিযোগ ছিল পূজারী ওই গরুগুলি পাচারের জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন। তাকে মারধর শুরু করে একদল লোক। একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয় পূজারীকে। সেখানেই মারা যান তিনি। তার সঙ্গী আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

গত দেড় বছরে একের পর এক কথিত গোরক্ষার নাম করে ভারতে বহু হত্যার ঘটনা ঘটল। এর আগে উত্তরপ্রদেশে এক মধ্যবয়স্ক মুসলমান ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

গরু পাচার রোধ অথবা গরুর জবাই রোধ এমনকি গরুর মাংস নিয়ে যাওয়ার মিথ্যা অভিযোগেও হেনস্থা বা হামলার শিকার হয়েছেন অনেকে।
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কয়েক সপ্তাহ আগে এই তথাকথিত গোরক্ষকদের ৮০ ভাগই সমাজবিরোধী বলে উল্লেখ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যের পরেই কেন্দ্রীয় সরকার সব রাজ্যগুলিকে মনে করিয়ে দিয়েছে যে গোরক্ষার নাম করে কেউ যাতে আইন নিজের হাতে তুলে না নিতে পারেন, তার জন্য পুলিশকে কঠোর হতে হবে।






মন্তব্য চালু নেই