মেইন ম্যেনু

ভারতে পিঁয়াজের কেজি ৫০ পয়সা!

ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের আওরঙ্গবাদ জেলার কৃষক রবিন্দ্র মধুকর পার্শ্ববর্তী লসুর বাজারে গিয়ে ৪৫০ কেজি পিঁয়াজ বিক্রি করে বিস্মিত হলেন। কারণ এতো পিঁয়াজ বিক্রি করে তিনি পেলেন মাত্র ১৭৫ রুপি। পিঁয়াজের আকস্মিক দরপতনে সেখানে পানির দরে বিক্রি হচ্ছে পিঁয়াজ।

আওরঙ্গবাদের এই কৃষকের মত অবস্থায় পড়েছেন আরও অনেকেই। টাইমস অব ইন্ডিয়ায় তিনি বলেছেন, ‘আগে যখন শুনতাম কোন কৃষক আত্মহত্যা করেছেন তখন অবাক হতাম। কিন্তু এইবার পিঁয়াজ বিক্রি করে আমি এতোটাই হতাশ যে আত্মহত্যা করতে ইচ্ছা করছে।’

লসুর বাজার পিঁয়াজের সবচেয়ে বড় পাইকারি আড়তের একটি। সেখানে অনেক কৃষক প্রতি কেজি পিঁয়াজ ৫০ পয়সাতেও বিক্রি করছেন। বেশিরভাগ কৃষকই শেষ পর্যন্ত তাদের খরচের টাকা পর্যন্ত তুলতে পারেননি। এই পরিমাণ লোকসান হওয়ায় পথে বসে গেছেন অনেকেই।

ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্য তীব্র খরায় আক্রান্ত হওয়ায় অনেক কৃষকই এবার আখের চাষ বাদ দিয়ে পিঁয়াজের চাষ করেছিলেন। ফলে প্রয়োজনের তুলনায় ফলন বেশি হওয়ায় হুট করে পিঁয়াজের দাম পড়ে গেছে।

কৃষকরা সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছে তাদের কাছ থেকে একটা ন্যায্য মূল্য ধরে পিঁয়াজ কিনে নেয়ার জন্য। এর প্রেক্ষিতে বিজেপির আঞ্চলিক মুখপাত্র শিরিশ বোরাল্কার বলেছেন, কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষণা দিয়েছে ১৫ হাজার টন পিঁয়াজ তারা কৃষকদের কাছ থেকে ক্রয় করবে।






মন্তব্য চালু নেই