মেইন ম্যেনু

ভালায় স্ত্রীকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

কামরুজ্জমান শাহীন : ভোলার লালমোহনে স্ত্রী ও দুটি পোষা ছাগলকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এলাকাবাসীর দাবি, ওই ব্যক্তি মানসিক রোগী।বুধবার(৩১আগস্ট) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে লালমোহন সদর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বাকলাই বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে ।

এলাকাবাসী জানান, বাকলাই বাড়ির আবদুর রাজ্জাক দীর্ঘদিন ধরেই মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন। এই সমস্যার কারণে এর আগেও কয়েকবার তিনি তাঁর স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করেন। বুধবার সকালে রাজ্জাক ভাত খেয়ে বাড়ির দুটি পোষা ছাগল সঙ্গে নিয়ে পাশের বিলে পাতাবনের কাছে যায়। সেখানে তাঁর সঙ্গে থাকা দুটি ছাগলকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেন। খবর পেয়ে রাজ্জাকের স্ত্রী বিবি ফাতেমা বেগম ও তাঁর ভাইয়ের ছেলের স্ত্রী জান্নাত বেগম ঘটনাস্থলে গিয়ে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাজ্জাক তাঁর স্ত্রী বিবি ফাতেমা বেগমকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেন। পরে জান্নাত বেগমের ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে রাজ্জাককে আটক করে।

ওয়ার্ড চৌকিদার মো. ইব্রাহীম খলিল জানান, রাজ্জাকের মাথায় সমস্যা ছিল। তাই তাঁকে আটকের পর গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়। পরে পুলিশেকে খবর দিয়ে সোপর্দ করা হয়। এ বিষয়ে লালমোহন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির বলেন, স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে আবদুর রাজ্জাককে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, তিনি তাঁর স্ত্রীকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যা করেছেন। তবে আব্দুর রাজ্জাক মানসিক রোগী বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এ বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।






মন্তব্য চালু নেই