মেইন ম্যেনু

ভালোবাসার ক্ষেত্রে যে ৪টি “নাটক” কখনোই করবেন না

প্রতিটা মানুষের কাছেই তার ভালোবাসার মানুষটি পৃথিবীর সবচাইতে গুরুত্বপূর্ন বিষয়গুলোর মধ্যে একটি। আর তাই এই মানুষটিকে ধরে রাখার জন্য, ভালোবাসা অটুট রাখার জন্য, আরেকটু বেশি গুরুত্ব পাওয়ার জন্য অনেকেই নানান রকমের ছলা-কলা ও নাটক করে থাকে প্রেমের সম্পর্কে। কিন্তু অনেক সময় এই অহেতুক নাটকই কাল হয়ে দাঁড়ায় সম্পর্কের জন্য। আসুন জেনে নেয়া যাক সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোন ৪ ধরণের নাটক একেবারেই করা উচিত না ভালোবাসার সম্পর্কে।

নিজে ভুল করেও সঙ্গীর উপর দোষ চাপিয়ে দেয়া
অনেকেরই অভ্যাস আছে নিজে ভুল করেও সেটা স্বীকার না করার। কিন্তু নিজে ভুল করে সেই ভুলের দোষটা অন্যের উপর চাপিয়ে দেয়ার ভুল মোটেও করা উচিত না। সম্পর্কের ক্ষেত্রে অনেকেই এই ভুলটি করেন। নিজেই কোনো দোষ করে সেটাকে সাজিয়ে গুছিয়ে, আবেগ মিশ্রিত করে সঙ্গীর উপর চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেন অনেকেই। এতে সম্পর্কের অবণতি ঘটে এবং সঙ্গীর সাথে দূরত্ব ধীরে ধীরে বেড়ে যায়।

কোনো বিষয়ে সাজিয়ে গুছিয়ে মিথ্যা বলা
কেউ কেউ বেশ সাজিয়ে গুছিয়ে মিথ্যা কথা বলতে পারে। যে কোনো ঘটনাকে রঙ চং মাখিয়ে বেশ বড় করে সঙ্গীর কাছে নাটকীয় ভাবে উপস্থাপন করা অনেকেরই অভ্যাস। যাদের এই অভ্যাস আছে তাদের জেনে রাখা ভালো যে মিথ্যাকে যতই সাজানো হোক তা মিথ্যাই থেকে যায়। কোনো ভাবেই সেটাকে সত্যতে রূপান্তরিত করা সম্ভব না এবং সেটা একসময়ে না একসময়ে প্রকাশিত হবেই। আর একবার মিথ্যুক হিসেবে সঙ্গীর কাছে ধরা পড়ে গেলে কোনো দিনও সঙ্গীর বিশ্বাস ফিরে পাওয়া সম্ভব না।

ব্রেকআপ এর নাটক সাজানো
সঙ্গীকে শায়েস্তা করার জন্য অনেকেই ব্রেকআপের নাটক সাজায়। ঝগড়াঝাটি হলে মন থেকে না চাইলেও মুখে চট করে বলে ফেলে ‘তোমার সাথে আমার সম্পর্ক শেষ’। যাদের এই অভ্যাস আছে তাঁরা না জেনেই নিজের সম্পর্কের ক্ষতি করছে। বার বার ব্রেকআপের নাটক সাজালে সঙ্গী এক পর্যায়ে বিরক্ত হয়ে যায় এবং দুজনের মানসিক দূরত্ব বাড়তে থাকে।

সঙ্গীর মনে হিংসা জাগানোর জন্য অন্যের সাথে সম্পর্কের নাটক
আপনার সঙ্গী আপনাকে কতটুকু ভালোবাসে তা পরীক্ষা করার জন্য কিংবা সঙ্গীকে একটু হিংসা করানোর জন্য কেউ কেউ পরকীয়ার নাটক করে। অন্য কারো সাথে ফোনে কথা বলে ফোন ব্যস্ত করে রাখা কিংবা সঙ্গীকে ইচ্ছে করে সময় না দিয়ে সন্দেহের উদ্রেক করে কেউ কেউ নিছক মজা করার জন্য। কিন্তু এধরণের কার্যকলাপ সম্পর্কের প্রতি বিশ্বাস ও শ্রদ্ধাবোধ নষ্ট করে দেয়।






মন্তব্য চালু নেই