মেইন ম্যেনু

ভালোবাসা দিবসে পুলিশের এক অন্যরকম ‘ভালোবাসা’

কে.এম জাহেদ, চট্টগ্রাম : রাস্তায় যানবাহন নিয়ন্ত্রণ কিংবা তল্লাশিতে ব্যস্ত পুলিশ। গাড়ি থামিয়ে তল্লাশির সময় চালক কিংবা যাত্রীর হাতে তুলে দিচ্ছে লাল গোলাপ। থানায় ব্যস্ত ডিউটি অফিসার। তারপরও সাধারণ মানুষ থানায় ঢোকার সঙ্গে তুলে দিচ্ছেন লাল গোলাপ। পুলিশের হাতে ফুল আর মুখে ‘শুভ ভালোবাসা দিবস’ শুনে অনেকেই বিস্মিত হচ্ছেন।

ভালোবাসা দিবসে ফুল দিয়ে সাধারণ মানুষকে শুভেচ্ছা জানানোর এ কর্মসূচী পালন করছে চট্টগ্রাম নগর পুলিশ। সিএমপি কমিশনার মোহা.আব্দুল জলিল মন্ডলের নির্দেশে নগরীর ১৬ থানায় এবং সব চেকপোস্টে পুলিশ প্রথমবারের মত ব্যতিক্রমধর্মী এই কর্মসূচি পালন করছে। নগর পুলিশ কমিশনার মোহা.আব্দুল জলিল মন্ডল বলেন, ভালোবাসা দিবসে মানুষের হাতে ফুল দিয়ে আমরা এই ম্যাসেজ দিচ্ছি যে, আমরা আপনাদের থেকে আলাদা কিছু না। পুলিশ সবসময় মানুষের জন্য। পুলিশ সব মানুষের। এজন্য ভালোবাসা দিবসের নগরবাসীর প্রতি আমাদের অকুণ্ঠ ভালবাসা। এই বন্ধন অটুট থাকুক।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, প্রত্যেক থানায় লাল গোলাপ কিনে জমা রাখা হয়েছে। সকালে প্রত্যেক থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার পক্ষ থেকে প্রথমে সহকর্মীদের সবাইকে গোলাপ তুলে দেয়া হয়। এরপর মামলা করতে কিংবা বিভিন্ন ধরনের আইনি সহায়তা নেয়ার জন্য নারী-পুরুষ যারাই আসছেন তাদের ডিউটি অফিসার দিচ্ছেন গোলাপ ফুল। আকবর শাহ থানার ওসি সদীপ কুমার দাশ বলেন, থানায় যারা আসছেন তাদের সবার হাতে গোলাপ দেয়া হচ্ছে। আবার আমাদের চেকপোস্ট যেখানে আছে সেখানেও গোলাপ পাঠানো হয়েছে। তারাও ফুল দিচ্ছেন।

বায়েজিদ বোস্তামি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, সহকারি কমিশনার আসিফ মহিউদ্দিন স্যারের নেতৃত্বে আমরা থানা এলাকায় সাধারণ মানুষের হাতে ফুল তুলে দিয়েছি। আমরা মানুষের ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। পুলিশ যে সবসময় জনগণের পাশে আছে এটাই আমরা তাদের জানিয়েছি।






মন্তব্য চালু নেই