মেইন ম্যেনু

ভালোবাসা দিবসে বাড়তি নিরাপত্তা

১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে যেকোনো ধরনের নাশকতা ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে মোতায়েন থাকবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য। পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সাদা পোশাকে বাড়তি নজরদারি করবে।

পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা নিরাপত্তা রক্ষায় কাজ করবে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ-কমিশনার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে তরুণ-তরুণীরা ঘোরাঘুরি করেন। বন্ধু-বান্ধব মিলে বিভিন্ন জায়গায় আড্ডা মারেন। এটাকে কেন্দ্র করে তেমন কোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় না। এরপরেও যেহেতু উঠতি বয়সি ছেলেমেয়েদের একটা বিরাট আয়োজন রয়েছে এ দিনটিতে, এজন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা গোটা এলাকায় বাড়তি নজরদারি রাখবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, শাহবাগ, রমনা পার্কসহ রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা দেওয়া হবে। এ ছাড়া যেসব জায়গায় কনসার্টের আয়োজন থাকবে, সেখানেও নজরদারি রাখা হবে। পরিস্থিতি বুঝে নিরাপত্তা দেওয়া হবে। বিশেষ করে উন্মুক্ত স্থানের অনুষ্ঠানগুলোয় সতর্কতার সঙ্গে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে।

তবে গোয়েন্দা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ক্রাইম কনফারেন্সে গত বৃহস্পতিবার ডিএমপি কমিশনার তেমন কোনো নির্দেশনা দেননি। এ দিবস নিয়ে পুলিশের তেমন কোনো মাথাব্যথাও নেই। এ দিবস যার যার মতো করে পালন করবে। তবে উন্মুক্ত স্থানগুলোতে অশ্লীল কোনো কিছু করতে দেওয়া হবে না বলে গোয়েন্দা কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এদিকে র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, র‌্যাবের পক্ষ থেকে কয়েক স্তরের নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকবে। টহল টিমের পাশাপাশি পোশাকে ও সাদা পোশাকে র‌্যাব সদস্যরা নিরাপত্তা রক্ষার কাজ করবে। কোথাও অশ্লীল কিছু করতে না পারে, জঙ্গিরা যাতে এ দিবসকে কেন্দ্র করে কোনো সুযোগ নিতে না পারে, এজন্য র‌্যাব সদস্যরা রাজধানী জুড়ে সজাগ থাকবে। এদিন র‌্যাবের প্রায় হাজার খানেক সদস্য রাজধানীতে টহল দেবে।






মন্তব্য চালু নেই