মেইন ম্যেনু

ভূমধ্যসাগরে ২ হাজার অভিবাসী উদ্ধার

লিবিয়ার উপকূলে ভূমধ্যসাগরে পাঁচটি কাঠের নৌকা থেকে ২ হাজারেরও বেশি অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে। ইউরোপীয় যুদ্ধজাহাজ ও কোস্ট গার্ডের কয়েকটি জাহাজের সাহায্যে তাদের উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার মাল্টাভিত্তিক ব্যক্তিগত অর্থায়নে পরিচালিত মাইগ্র্যান্ট অফসোয়ার এইড স্টেশন (মোয়াস) এ তথ্য জানিয়েছে।

মোয়াস জানায়, পাঁচটি মাছ ধরার কাঠের নৌকায় ভর্তি এসব অভিবাসীকে উদ্ধারে ইতালীয়, আইরিশ ও জার্মান জাহাজের সহায়তায় অভিযান চালানো হয়।

ঠিক কতজন অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে, তা নিশ্চিত করে বলতে পারেনি ইতালির কোস্ট গার্ড। তবে তারা আরো প্রায় সাতটি অভিবাসীবাহী নৌকা সাগরে চিহ্নিত করেছে এবং এসব অভিবাসীদের উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

অবস্থা সামাল দিতে লিবিয়ার উদ্দেশে রওনা দিয়েছে ব্রিটিশ রয়্যাল নৌবাহিনীর জাহাজ এইচএমএস বুলওয়ার্ক। ভূমধ্যসাগরে ভাসমান নাজুক নৌকায় অবস্থানরত অভিবাসীদের উদ্ধারে এই জাহাজের নাবিকেরা হেলিকপ্টারে অভিযান চালাবে।

উল্লেখ্য, গত কয়েক মাসে বুলওয়ার্ক প্রায় ১ হাজার ৮০০ সাগরভাসা মানুষের জীবন বাঁচিয়েছে।

জাতিসংঘ শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা জানিয়েছে, এ বছরের প্রথম পাঁচ মাসে প্রায় সাড়ে ৪৬ হাজার অভিবাসী ইতালির উপকূলে ভিড়েছে, গত বছরের তুলনায় যা ১২ শতাংশ বেশি। আফ্রিকা থেকে ভূমধ্যসাগর হয়ে অবৈধ পথে ইতালি ও এর আশপাশের দেশে পাড়ি জমাতে গিয়ে নৌকাডুবিতে এ সময়ে বহু অভিবাসী প্রাণ হারিয়েছে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি ও রয়টার্স অনলাইন।






মন্তব্য চালু নেই