মেইন ম্যেনু

ভোটারদের জোরপূর্বক প্রকাশ্যে নৌকায় সিল মারতে বাধ্য করার অভিযোগ

মেহেরপুর: সদর উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের তিনটি কেন্দ্রে প্রকাশ্যে ব্যালটে সিল দেয়া হচ্ছে। ভোটারদের জোরপূর্বক নৌকা প্রতীকে প্রকাশ্যে সিল মারতে বাধ্য করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি প্রার্থী।

পিরোজপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও বিএনপি প্রার্থী সামসুল আলম জানান, পিরোজপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পিরোজপুর দাখিল মাদরাসা ও পিরোজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার পর থেকে প্রকাশ্যে নৌকা প্রতীকে সিল মারতে বাধ্য করছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থীর এজেন্ট ও সমর্থকরা। বিএনপি-জামায়াতের ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে প্রবেশ করলে তাদের বুথের মধ্যে যেতে না দিয়ে প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসারদের সামনে সিল মারতে বাধ্য করা হচ্ছে।

এছাড়াও ওই তিনটি কেন্দ্রে তার পক্ষের ভোটারদের কেন্দ্রে যেতে বাধা দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে পিরোজপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও বাড়িবাকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল আলিম কোনো কথা বলতে রাজি হননি। প্রকাশ্যে কীভাবে ব্যালটে সিল দেয়া হচ্ছে প্রশ্ন করলে তিনি কোনো উত্তরও দেননি।

এদিকে বিএনপি প্রার্থীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মেহেরপুর জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ পুলিশ ও বিজিবির একাধিক দল তিনটি কেন্দ্র পরিদর্শন করেছে। এসময় পিরোজপুর দাখিল মাদরাসা কেন্দ্র থেকে জাল ভোট দেয়ার চেষ্টার দায়ে তিন কিশোরকে ৪ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করেন। বর্তমানে ওই এলাকায় সুষ্ঠু পরিবেশে ভোটগ্রহণ চলছে বলে দাবি করেছেন মেহেরপুর জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ।






মন্তব্য চালু নেই