মেইন ম্যেনু

ভোট দিলেই পাবেন নগ্ন মহিলা !

একের পর এক উল্টোপাল্টা কথা, বেমক্কা প্রতিশ্রুতি। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিদ্বেষীর সংখ্যা নেহাত কম নয়। কিন্তু এ-ও অনস্বীকার্য যে, তাঁর জনপ্রিয়তা কিন্তু দিনে দিনে বাড়ছেও। এহেন এক চরিত্রের মোকাবিলায় কী করছে বিরোধী দলগুলি?

ট্রাম্প-বিরোধী একটি গোষ্ঠী এনেছে নয়া টোপ! ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ভোট দিলেই হাতে-হাতে তুলে দেওয়া হবে নগ্ন মহিলা! তবে ভাবনায় একটু গলদ থেকে যেতে পারে। সেই মহিলা সশরীরে উপস্থিত হবেন না। প্রস্তাব এই রকম— ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যে কোনও প্রার্থীকে ভোট দিন। তার পরে এই গোষ্ঠীকে জানিয়ে দিন কার নগ্ন ছবি আপনি চান। ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে ভোটদাতার মোবাইলে চলে আসবে সেই কাঙ্ক্ষিত নারীর নগ্ন ছবি।

তবে এ ক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠেছে, যদি কেউ কোনও সেলিব্রিটির নগ্ন ছবি চেয়ে বসেন (এবং কার্যক্ষেত্রে অনেকে তেমন করতেও পারেন), তাহলে কী হবে? অনেক সেলিব্রিটির নগ্ন ছবি (তাঁদের সম্মতিতেই তোলা) ইন্টারনেটে রয়েছে। কিন্তু যাঁদের নেই, এমন কোনও ব্যক্তিত্বের নগ্ন ছবি কেউ চাইলে কী হবে? তাহলে কি যারা প্রস্তাব করেছে, তারা কোনও অসদুপায় অবলম্বন করবে? যে ইনস্টাগ্রাম পেজের মাধ্যমে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, সেই পেজটি আপাতত নেই।

তবে নিঃসন্দেহে, ট্রাম্পকে হারাতে এমন পন্থা বেশ অভিনব। যে গোষ্ঠীটি এই প্রস্তাব এনেছিল, তাদের কারও আপাতত দেখা মিলছে না বলেই খবর। তারা কোনও রাজনৈতিক দল বা পক্ষ নিয়ে কথা বলছে, এমনও শোনা যায়নি। তাদের লক্ষ্য স্রেফ একটিই, ট্রাম্পকে হারানো। সুত্র- এবেলা






মন্তব্য চালু নেই