মেইন ম্যেনু

ভোলায় জোয়ারের পানিতে এখনও কয়েক শত পরিবার পানি বন্ধি

ভোলায় মেঘনার ভাঙনে শিকার ও সড়ক বাধ ভেঙে পানি প্রবেশ করায় রাজাপুর ইলিশা ইউনিয়নের সহধিক পরিবার নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। সোমবারও জোয়ারের পানিতে কয়েক শ পরিবার পানি বন্ধি হয়ে পড়েছে। জোয়ার এলেই এসব পরিবাদেরর সদস্যদের দুভোর্গ চরমে পৌছে। তখর ঘর বাড়ি ছেড়ে উচু রাস্তায় অনেকে আশ্রয় নেয়।

অপর দিকে ফেরিঘাট চডার মাথা এলাকায় জোয়ারের পানির চাপে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নতুন রিং বাঁধটিও ঝুঁকর মধ্যে পড়েছে। এ বাঁধ টি ভেঙ্গে গেলে কয়েকটি ইউনিয়ন প্লাবিত হওয়ার আশংকা রয়েছে।

এদিকে গতকাল বিকালে ইলিশা চডার মাথা এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মধ্যে নগদ টাকা, চাল ও সুকনো খাবার বিতরণ করেছেন সদর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ ইউনুছ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী তোফায়েল হোসেন। এ সময় ত্রান নেয়ার জন্য ক্ষতিগ্রস্ত নারী পুরুষরা ভিড় জমায়।

উপজেলা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ ইউনুছ জানান, ৩শ পরিবারকে পূর্নবাসনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য নগদ ৩ লাখ টাকা দেয়া হয়। ওই টাকার মধ্যে জেলা প্রশাসন দেয় এক লাখ টাকা ও উপজেলা প্রশাসন দেয় ২ লাখ টাকা দিয়েছে।

এছাড়া ২০ মেট্রিক টন চাল ও এক হাজার পরিবারকে চিড়া , গুর দেয়া হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত এ সব ত্রান দেয়া হয়। একই সঙ্গে এরা ভাঙন এলাকা পরিদর্শণ করেন।






মন্তব্য চালু নেই